ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, হাসপাতাল ভাংচুর

0

লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের আধুনিক হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায়  রেজিয়া বেগম নামের এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের বিক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতাল ভাংচুর ও ঘণ্টাব্যাপী  অভিযুক্ত ডাক্তারকে অবরুদ্ধ করে রাখে। শনিবার (১১ মে) ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতাল সূত্র ও নিহতের স্বজনরা জানায়, পশ্চিম লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হাইয়ের স্ত্রী রেজিয়া বেগম ভাঙা হাত নিয়ে শুক্রবার (১০ মে) চিকিৎসার জন্য আসেন আধুনিক হাসপাতালে। রাত ১০ টার দিকে ওই রোগীকে অচেতন করে হাতের অপারেশন করেন হাসপাতালের অর্থোপেডিক ডা. এসহাক ভূঁইয়া। অপারেশনের পর শনিবার ভোর পর্যন্ত ওই রোগীর জ্ঞান ফেরেনি। এসময় ডাক্তারের পরামর্শে দায়িত্বরত নার্স রোগীকে একটি ইনজেকশন পুশ করেন। এর কিছুক্ষণ পর রোগী মারা গেছে বলে জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ঘটনার পর রোগীর বিক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতাল ভাংচুর করে। প্রায় ১ ঘণ্টা ওই ডাক্তারকে অবরুদ্ধ করে রাখে তারা। এসময় হাসপাতালের স্টাফ ও নার্সরা পালিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের মেয়ে বিউটি আক্তার জানান, ভুল চিকিৎসায় তার মা’র মৃত্যু হয়েছে। পরে ডাক্তার তাদের জানান, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার বিচার দাবি করেছেন তারা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এর আগেও হাসপাতালটিতে বেশ কয়েকজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। অথচ কর্তৃপক্ষ হাসপাতালটির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

তবে ডা.  এসহাক ভূঁইয়া বলেন, ভুল চিকিৎসায় নয়, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়েই মারা গেছে রোগী।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হেসেন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জয়নিউজ/আতোয়ার/আরসি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...