মালয়েশিয়া পাড়ি জমাতে মরিয়া রোহিঙ্গারা

0

টেকনাফের নাফনদী ও উখিয়ার সাগর উপকূলীয় জনপদ রেজুখালের চরপাড়া এখন সাগরপথে মানব পাচারের নিরাপদ রুটে পরিণত হয়েছে। রাতের অন্ধকার নেমে আসার সঙ্গে সঙ্গে মালয়েশিয়া পাড়ি জমাতে এসব এলাকায় আসেন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষেরা।

সোমবার (১৩ মে) রাত ৩টার দিকে ইনানী পুলিশ চরপাড়া ব্রিজের নিচে নৌকায় উঠতে অপেক্ষমান ১৭ নারী, শিশু ও ২ রোহিঙ্গা পুরুষকে আটক করেছে।

আটককৃতদের মধ্যে বালুখালী ১নং ক্যাম্প ১৬নং ব্লকের বাসিন্দা সাবেকুন নাহার (১৬) জানান, তারা মালেশিয়া যাওয়ার জন্য দালালের সহযোগিতায় এখানে পর্যন্ত এসেছেন। তবে তিনি দালালের নাম বলতে পারেননি।

বালুখালী জামতলী ব্লক-১ এর বাসিন্দা হামিদুর রহমান (২০) জানান, তাদের আত্মীয়-স্বজন দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়ায় আছেন। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী মালয়েশিয়া পাড়ি জমাতে দালালের কথামত চরপাড়া ব্রিজ এলাকায় অপেক্ষা করছিলেন।

এ ব্যাপারে ইনানী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সিদ্ধার্থ সাহা বলেন. রোহিঙ্গারা স্থানীয় দালালের মাধ্যমে বালুখালী ও জামতলী ক্যাম্প থেকে চরপাড়া পর্যন্ত এসেছে। তারা দালালের নাম বলতে পারছে না। আটক রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প ইনচার্জের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বালুখালী ক্যাম্পের আনোয়ার মাঝি বলেন, স্থানীয় দালালেরা ক্যাম্পে প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করছে। বিশেষ করে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত যুবক রোহিঙ্গাদের সঙ্গে রোহিঙ্গা মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তাদের যাবতীয় খরচপাতি মালয়েশিয়া থেকে পাঠানো হচ্ছে।

এর আগেও কয়েকদফা রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ মালয়েশিয়ায় চলে গেছে বলে জানান তিনি।

জয়নিউজ/পলাশ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...