রাজারমাঠে রাজপ্রাসাদ!

0

শারদীয় দুর্গোৎসব ঘিরে বান্দরবানে চলছে সাজ সাজ রব। এবারও জেলা শহরের রাজারমাঠে রাজপ্রসাদের আদলে দক্ষিণ চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় পূজামন্ডপ তৈরি করা হয়েছে। সোমবার থেকে জেলার ৭১টি ছোট-বড় মন্ডপে হিন্দু ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা শুরু হবে। উৎসব চলবে ৫দিন ব্যাপী।

পূজা উদযাপন কমিটি জানায়, জেলার সাত উপজেলায় সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন কমিটির ব্যানারে ২৭টি এবং স্থানীয়ভাবে আরো প্রায় ৪৫টি মন্দিরে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করা হচ্ছে। তারমধ্যে সদর উপজেলায় ১১টি, রোয়াংছড়িতে ২টি, রুমায় ১টি, থানছিতে ১টি, লামায় ৭টি, আলীকদমে ৩টি, নাইক্ষ্যংছড়িতে ২টি মন্ডপে কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উৎসব উদযাপিত হচ্ছে। এছাড়াও লামা উপজেলার কেন্দ্রীয় হরি মন্দির, বগাইছড়ি কমিউনিটি সেন্টার হরি মন্দির, ইয়াংছা রাম মন্দির, আজিজ নগর তেলুনিয়া পাড়া হরি মন্দির, পূর্ব হায়দার নাশী উত্তর হিন্দু পাড়া হরি মন্দির, নারা খোলা হরি মন্দির, পাগলী আগা পাড়া পূজা মন্ডপ, চম্পাতলী লোকনাথ হরি মন্দির, আলীকদম উপজেলার হরিমুখ হরি মন্দির, নাইক্ষ্যংছড়ি কেন্দ্রীয় সর্বজনীন হরি মন্দিরকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এই দশটি পূজামন্ডপে বাড়তি নিরাপত্তা এবং আলোকসজ্জ্বার ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছে পূজা উদযাপন কমিটি।

এবার জেলায় পূজামন্ডপগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি উৎসব উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকেও আলাদাভাবে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের কথা জানিয়েছে আয়োজকরা।

জেলা কেন্দ্রীয় দুর্গোৎসব উদযাপন কমিটির সভাপতি লক্ষী পদ দাশ জানান, সোমবার থেকে জেলায় ২৭টি মন্ডপে কেন্দ্রীয়ভাবে দুর্গোৎসব উদযাপিত হবে। এছাড়াও ব্যক্তি ও সংগঠনের উদ্যোগে ছোট-বড় অনেকগুলো মন্ডপে পূজা আয়োজন করা হয়েছে। জেলায় ঝুকিপূর্ণ কোনো পূজামন্ডপ নেই। তবে কিছু পূজা মন্ডপকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। সেগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি মন্দির কমিটি আলাদাভাবে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করবে।

স্থানীয় রাজারমাঠে আয়োজিত রাজপ্রসাদ আদলে কেন্দ্রীয় দুর্গোৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার জানান, শারদীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সব ধরণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই আশা করি শান্তিপূর্ণভাবেই দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...