চবিতে হবে আইয়ুব বাচ্চু কর্ণার: ভিসি

0

রুপালি গিটার ফেলে চলে গেছেন বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু। তাঁর সুর ধ্বনিত হবে কোটি শ্রোতার কণ্ঠে। কিন্তু রেখে যাওয়া ৬৭টি গিটারের কী হবে? আর কি সুরের ঝঙ্কার তুলবে না উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠ গিটারগুলো?

না, ভক্তদের এ নিয়ে শঙ্কিত হতে হবে না। কারণ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) জাদুঘরে রাখা হবে আইয়ুব বাচ্চু ৬৭ গিটারের ৬০টি।

চবি উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় জাদুঘরে আইয়ুব বাচ্চুর নামে একটি কর্ণার করা হবে। আইয়ুব বাচ্চু চট্টগ্রামের সন্তান, চট্টগ্রামের গর্ব, বাংলাদেশের গর্ব, উপমহাদেশের গর্ব। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সবচেয়ে সমৃদ্ধ জাদুঘর হলো চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় জাদুঘর। সেখানে এই লিজেন্ডের নামে একটি কর্ণার করাটা আমাদের জন্য আনন্দের।

তিনি বলেন, ছয় মাস আগে বাচ্চুর সাথে একটা অনুষ্ঠানে আমার দেখা। সামনে এসে পা ছুঁয়ে সালাম করলো। আমি বললাম, তুমিতো আমার ক্যাম্পাসে এলে না। বাচ্চু বলল, আপনি ডাকলে আমি অবশ্যই আসবো। এখন বিভাগ অনুযায়ী আলাদা আলাদ নবীনবরণ হয়। এবার সম্মিলিতভাবে কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে ১ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীনবরণ করার ইচ্ছে ছিল। অনুষ্ঠানে আমাদের সঙ্গীত বিভাগ আর বাচুচ এককভাবে গান করার কথা। কিন্তু সেই শুভক্ষণটি আর এল না। আনন্দক্ষণটি আসার আগে আমাদের কাঁদিয়ে বাচ্চু চিরবিদায় নিলো।

চিবি ভিসি জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে তার ছোট মামা আবদুল আলীম আমার সাথে যোগাযোগ করেছেন বাচ্চুর ব্যবহৃত ৬০টি গিটার বিশ্ববিদ্যালয় জাদুঘরে দেওয়ার জন্য। গিটারগুলো পেলে আমাদের জাদুঘর আরো সমৃদ্ধ হবে। গিটার পেলেও বাচ্চু কর্ণার হবে, না পেলেও হবে।

সংগীতের এই কিংবদন্তী তাঁর বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে ৬৭টি গিটার ব্যবহার করেছেন। বাচ্চু দেশ-বিদেশ ঘুরে গিটারের এই সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছেন। গিটারগুলো মাঝে একবার নিলামে তুলেছিলেন তিনি। কিন্তু আবার সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। গিটারপ্রেমী শিক্ষার্থীদের অনুপ্রাণিত করতে ৬০টি গিটার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দেওয়ার ইচ্ছে ছিল তাঁর।

জয়নিউজ/ফারুক/ধৃতরাষ্ট্র/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...