স্থিতিশীল বাজারে শসার দাম চড়া

0

সবজির বাজারে শসার দাম একলাফে বেড়ে গেছে। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে ছয় টাকা থেকে বেড়ে এখন শসা বিক্রি হচ্ছে আঠারো থেকে বিশ টাকায়। বৃষ্টির কারণে এই দাম বৃদ্ধি বলে জানিয়েছে সবজি বিক্রেতারা। দাম কমে যাবে বলে জানায় তারা। এছাড়া মাছ-মাংসের দাম স্থিতিশীল থাকলেও বাজারে সবজির দাম পাঁচ থেকে দশ টাকা পর্যন্ত কমেছে।

নগরের রিয়াজউদ্দিন বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, কাঁচাবাজারে চিচিঙ্গা চল্লিশ টাকা থেকে কমে ত্রিশ টাকায়, পটল প্রতি কেজিতে ত্রিশ টাকা, লাউ পাঁচ টাকা বেড়ে ত্রিশ টাকায়, পেঁপে পাঁচ টাকা কমে বিশ টাকায়, ঢেড়শ চল্লিশ টাকা, তিতা করলা দশ টাকা কমে চল্লিশ টাকা, বরবটি দশ টাকা বেড়ে সত্তর টাকায়, টমেটো কেজিতে দশ টাকা কমে সত্তর টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বেগুনের দাম আগের মতো রয়েছে। বিক্রি হচ্ছে চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ টাকায়, কাকরোল দশ টাকা কমে পঞ্চাশ টাকা, আলু ২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে । কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে কেজিতে ৫০-৬০টাকায় ।

অন্যদিকে, মাছ বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, কমেছে গুটিকয়েক মাছের দাম। তবে বেশির ভাগ মাছের দাম স্থিতিশীল রয়েছে । চিংড়ি আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৭৫০-১১০০ টাকায়, তেলাপিয়া আকারভেদে ১৪০-১৭০ টাকায়, লইট্টা বিশ টাকা কমে ১০০-১২০ টাকায়, ইলিশ মাঝারি সাইজের একশ’ টাকা কমে আটশ’ টাকায়, কোরাল ৬২০-৬৫০টাকা, রূপচাঁদা (বড়) ৯০০ টাকা থেকে কমে ৮০০ টাকায় এবং (ছোট)পাঁচশত পঞ্চাশ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দেশি মাগুর ৬৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া কাতলা (বড়) ৩৫০ টাকা এবং (ছোট) ২৬০ টাকায়, শিং মাছ (বড়) ৬০০ টাকা এবং (ছোট) ৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অপরদিকে অপরিবর্তিত রয়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। কেজিতে বিক্রি হচ্ছে ১২৫-১৩০ টাকায় । দেশি মুরগি কেজিতে ত্রিশ টাকা কমে এখন বিক্রি হচ্ছে ৩৭০ টাকায়। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে ছাগলের মাংসের দাম। প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে এখন ৭৫০ টাকায়। পরিবর্তন হয়নি গরুর মাংসের দাম। কেজিতে গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে (হাড়ছাড়া) ৬০০ টাকা এবং (হাড়সহ) ৪৪০ টাকায়।

জয়নিউজবিডি/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...