বছরে ৬৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সাশ্রয় করবে চসিক

0

নগরে বসবে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি। ট্রাফিক ও পথচারীর জন্য থাকবে আলোকায়ন। রাত নামলেই নতুন রূপ পাবে নগর। এতে বাড়বে ব্যবসার পরিধি। বাড়বে সামাজিক নিরাপত্তাও।

এমনটিই ভাবছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। সোমবার (২২ অক্টোবর) সর্বসম্মতিতে পরিকল্পনা কমিশনের প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভায় অনুমোদন পেয়েছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) ৬৪০ কোটি ৪৯ লাখ টাকার এলইডি লাইটিং প্রকল্প।

এই বিষয়ে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন জয়নিউজকে বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ৬৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ খরচ কমবে। চসিকের বিদ্যুৎ বিল নেমে আসবে প্রায় অর্ধেকে। প্রকল্পটি আগামীতে একনেক সভায় উপস্থাপনা করা হবে। সেখানে অনুমোদন পেলে বাস্তবায়ন শুরু হবে। আগামী ২০২০ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মেয়াদ নির্ধারিত রয়েছে।
এ ব্যাপারে চসিক প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্ণেল মহিউদ্দিন আহমেদ জয়নিউজকে বলেন, প্রকল্পটি প্রি-একনেক হয়েছে আজ (২২ অক্টোবর)। একনেকে পাস হওয়ার পর বাস্তবায়ন হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বিদ্যুতের সাশ্রয় হবে। একইসঙ্গে বাড়বে নগরের সৌন্দর্য।

চসিক সূত্রে জানা গেছে, প্রতিবছর আলোকায়ন খাতে চসিকের বিদ্যুৎ খরচ হয় ১৩৬ মেগাওয়াট। এ হিসাবে বছরে সংস্থাটিকে কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হয়। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও পানির বিল বাবদ ৩৪ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব্যয় করে চসিক। নগরের ৪১টি ওয়ার্ড এলাকায় এলইডি আলোকায়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে চসিকের প্রায় ৬৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ব্যবহার কমবে।

জয়নিউজ/কাউছার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...