মেয়র বললেন ‘ষড়যন্ত্রের ঐক্যফ্রন্ট’

0

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, ঐক্যের নামে কিছু ব্যক্তি দেশে ষড়যন্ত্রে মেতেছেন। তারা দেশজুড়ে অস্থিতিশীলতা তৈরি ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ নষ্ট করতে উঠেপড়ে লেগেছে।

শনিবার (২৭ অক্টোবর) বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের বন্দর, ইপিজেড ও পতেঙ্গা থানা শাখা আয়োজিত গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ঐক্যের নামে যারা এখন বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছেন তাদের জনগণ চিনে না। জনগণ উন্নয়নের সফলতা ভোগ করে আওয়ামী লীগকে অন্তরে ধারণ করে। আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটে আবারো আওয়ামী লীগ বিপুল ভোটে ক্ষমতায় যাবে। তিনি বলেন, যারা ঐক্যফ্রন্ট করেছেন তাদের কারো মেরুদন্ড নেই। বাংলাদেশে বর্তমানে তারুণ্যের রাজনীতি চলছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার মাধ্যমে তারুণ্যের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছেন।

দেশজুড়ে অবকাঠামো উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, গত দশ বছরের উন্নয়ন এ দেশকে ৫০ বছর এগিয়ে দিয়েছে। তিনি বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মধ্যদিয়ে তারেক জিয়াসহ বিএনপি-জামায়াত সারা বিশ্বে নিজেদের সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। এ অপরাধের বিচারের রায় কার্যকরের মধ্যদিয়ে জাতি কালিমামুক্ত হবে।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, স্বাধীনতার পর গত দশ বছরে যা উন্নয়ন হয়েছে তা বিশ্বের কাছে রোল মডেল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চিন্তা, মননশীলতায় এ দেশ সমৃদ্ধির শিখরে পৌঁছে যাবে। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর আজ পৃথিবীর বাণিজ্যে এক বিস্ময়। এ বন্দর আজ অনেক বেশি সমৃদ্ধ। তিনি আরো বলেন. ২১ আগস্ট এ জাতির জন্য কলঙ্কের দিন। পৃথিবী যতদিন বেঁচে থাকতে ততদিন ২১ আগস্ট এলে বিএনপি-জামায়াতকে বাঙালি ঘৃণাভরে স্মরণ করবে।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি ও এতিমদের টাকা আত্মসাতের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের পুনর্বাসনের পাঁয়তারার বিরুদ্ধে এবং স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের প্রতীক সেনাবাহিনী প্রধানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার প্রচারকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে এ গণসমাবেশের আয়োজন করা হয়।

 

জয়নিউজ/অভি/জুলফিকার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...