মসলার বাজারে আগুন

0

পরিবহন ধর্মঘটের কারণে দেশের বৃহৎ পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে বেড়েছে মসলার দর। গত সপ্তাহের তুলনায় আদা, জিরা ও এলাচ কেজি প্রতি ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়েছে । বাজারে নতুন আমন চাল আসায় স্থিতিশীল আছে চালের দর ।

চাক্তাই-খাতুনগঞ্জ সাধারণ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সোলায়মান বাদশা জয়নিউজকে বলেন, পরিবহন ধর্মঘটের কারণে গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে মসলার দর বেড়েছে । মসলা ছাড়া বাকি পণ্যের দর স্থিতিশীল রয়েছে ।

দেখা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে আদা ৪০ টাকা বেড়ে ১৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৫ টাকা বেড়ে ৩০ টাকায়, হলুদ কেজি প্রতি ৬ টাকা বেড়ে ১৯৮ টাকায়, জিরা কেজি প্রতি ৩২ টাকা বেড়ে ৩২২ টাকায়, এলাচ কেজি প্রতি ৪০ টাকা বেড়ে ১৫৩০ টাকায়, দারচিনি ১১ টাকা বেড়ে ২২১ টাকায় বিক্রি হচ্ছে । রসুন বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায় ।

অন্যদিকে স্থিতিশীল রয়েছে ডাল-চালের দর। প্রতি কেজি মসুর ডাল ৭৮ টাকায় (ভালো মানের) ও ৩২ টাকায় (মধ্যম মানের) এবং মুগ ডাল ৬২ টাকায় (মধ্যম মানের) ও ৯০ টাকায় (ভালো মানের বিক্রি হচ্ছে ।

পাহাড়তলী চালের বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে আসতে শুরু করেছে নতুন আমন চাল। পাহাড়তলী বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম নিজাম উদ্দিন জয়নিউজকে বলেন, এ সপ্তাহে চালের দাম স্থিতিশীল আছে। কারণ বাজারে নতুন আমন চাল আসছে ।

দেখা গেছে, এই বাজারে জিরাশাইল বস্তাপ্রতি ২ হাজার ২০০ টাকা থেকে ২ হাজার ৩০০ টাকায় ও প্রতি কেজি ৪৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মিনিকেট ১ হাজার ৮০০ টাকা থেকে ২ হাজার টাকায় ও প্রতি কেজি ৩৬ টাকা থেকে ৩৭ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য চাল বস্তা প্রতি ১ হাজার ৭০০ টাকা ও কেজি প্রতি ৩৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।

জয়নিউজ/ফয়সাল/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...