জাপানে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগ পাচ্ছে বিদেশি কর্মীরা!

0

কর্মীর অভাব আছে এমন জায়গায় বিদেশি কর্মী নিয়োগের সুযোগ রেখে অভিবাসন নিয়ম-নীতি শিথিল করতে একটি খসড়া আইন অনুমোদন করেছে জাপানের মন্ত্রিসভা৷ এর ফলে বিদেশি কর্মীরা দেশটিতে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগ পাবে৷

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবে’র মন্ত্রিসভা এই খসড়া আইন অনুমোদন করে৷ খসড়া আইনটি এখন পার্লামেন্টে পাস হতে হবে৷ জাপান তাদের ‘জাতিগত একতা’ নীতির কারণে এতদিন বিদেশি কর্মীদের স্থায়ীভাবে থাকতে দেওয়ার বিরুদ্ধে ছিল৷ কিন্তু ক্রমবর্ধমান বয়স্ক মানুষের সংখ্যা এবং কর্মক্ষম জনসংখ্যা কমে যাওয়ায় সেই নীতি থেকে পিছু হঠতে হচ্ছে তাদের৷ তথ্যসূত্র: এপি, এএফপি, রয়টার্স

নতুন আইনে দু’ ধরনের ভিসা ক্যাটাগরি তৈরি করা হচ্ছে৷ কৃষি, হোটেলের নির্মাণকাজ, হাসপাতালে সেবিকার কাজ- এসব খাতে ‘ব্লু কলার ওয়ার্কার’ আনা যাবে৷ অন্তত ৫ লাখ বিদেশি কর্মী নিয়োগ দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো৷

প্রথম ক্যাটাগরিতে যাদের ভিসা দেওয়া হবে তাদের সংশ্লিষ্ট কাজে দক্ষ হতে হবে৷ তবে পাঁচ বছরের আগে তারা পরিবার আনতে পারবে না৷ আর দ্বিতীয় ক্যাটাগরিতে তাদেরই সুযোগ দেওয়া হবে যারা উচ্চ দক্ষতাসম্পন্ন৷ তারা শুরু থেকেই পরিবার নিয়ে জাপানে বসবাস করার অনুমতি পাবে৷

সিকিউরিটি ফার্ম প্রোটেকশন করপোরেশনের নির্বাহী শিজেকি ইয়াওয়াতা জানান, বর্তমানে এখানে নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে বিদেশিদের কাজ করার সুযোগ খুব কম৷ সামনেই অলিম্পিক গেমস শুরু হবে৷ তখন বিদেশি কর্মীদের বেশি প্রয়োজন হবে৷

গত এক যুগ ধরে ইয়াওয়াতা বিদেশি কর্মী নিয়োগ দিয়ে আসছে৷ তবে বিরোধী দলগুলো প্রস্তাবিত এই আইনের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

টোকিও অভিবাসন ব্যুরোর সাবেক প্রধান হিদেনরি সাকানাকা বলেন, অভিবাসন নীতিতে এটা বড় ধরনের পরিবর্তন৷

তবে প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবে বলেছেন, অভিবাসন আইনে কোনো পরিবর্তন আনা হচ্ছে না৷

<h5/>জয়নিউজ/হিমেল<h5/>

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...