৯ নভেম্বর থেকে কক্সবাজার মাতাবে বিডিক্লিন

0

গায়ে থাকবে লাল-সবুজ টি-শার্ট। মাথায় থাকবে ক্যাপ। মুখে মাস্ক। গ্লাভস পড়া হাতে ঝাড়ু-বেলচা নিয়ে তারা মাতাবেন কক্সবাজার। তিনদিনের এই অভিযানে পাল্টে যাবে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকতের পাঁচটি পয়েন্টের চিত্র!

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের পাঁচটি পয়েন্ট পরিষ্কারের এই অভিযান শুরু করবে বিডিক্লিন পরিবার। রোববার (১১ নভেম্বর) পর্যন্ত তিন দিন ১ হাজার ২০০ জন সদস্য নিয়ে কক্সবাজার পরিষ্কারের অভিযানে থাকবে সংগঠনটি।

বিডিক্লিন চট্টগ্রামের বিভাগীয় সমন্বয়ক আদিল আহমেদ কবির বলেন, আমরা ৯ নভেম্বর থেকে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত তিনদিন কক্সবাজারে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করব। প্রথমদিনে আমরা ৫০টি টিমে ভাগ হয়ে সৈকতের শৈবাল, লাবনী, সুগন্ধা, কলাতলী ও ইনানী পয়েন্টে কাজ করব। দ্বিতীয় দিনে শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে কলাতলী মোড় পর্যন্ত। হোটেল অস্টারিকোর আশপাশের সড়ক ও গলিপথ পরিষ্কার করবে টিমের সদস্যরা। এছাড়া আমাদের ৫০ জনের সার্ফিং টিম সাগরে পানিতে ভেসে আসা আবর্জনা পরিষ্কার করবে। তৃতীয় দিন বিডিক্লিনের সকল সদস্য কক্সবাজার শহরের পরিষ্কার কার্যক্রম শুরু করবে এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে লালদিঘী হয়ে বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত পরিষ্কার অভিযান চালানো হবে।

তিনি আরো বলেন, কক্সবাজার বিডিক্লিনের ৬০০ সদস্যের সঙ্গে ৬৩ জেলা থেকে যুক্ত হবে আরো ৬০০ সদস্য। তারা সবাই হোটেল অস্টারিকোতে অবস্থান করবে। সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে এ কাজে অংশ নেবে সদস্যরা। আমাদের এ আয়োজনে যুক্ত হবেন কক্সবাজারে বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা হিসেবে অবস্থানরত প্রায় ৪০ জন বিদেশি নাগরিক।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৩ জুন ২৩ জন সদস্য নিয়ে ঢাকায় বিডিক্লিন যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে সারা দেশে এ সংগঠনের ২০ হাজার সদস্য রয়েছে। ৬৪ জেলায় রয়েছে এ সংগঠনটির কার্যক্রম। সম্পূর্ণ স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠন ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত হিসেবে ঘোষণার প্রত্যয় নিয়ে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এ সংগঠনটির প্রধান সমন্বয়ক ফরিদ উদ্দিন। চট্টগ্রামে এ সংগঠনের ১২৫০ জন সদস্য রয়েছে। তাদের বেশিরভাগই বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

জয়নিউজ/ফরহান অভি/জুলফিকার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...