চকরিয়ায় ৮ বিএনপি নেতা-কর্মী গ্রেফতার

0

কক্সবাজারের চকরিয়ায় নাশকতার পরিকল্পনা এবং মহাসড়কে যানবাহনে ভাঙচুরের অভিযোগে উপজেলা বিএনপির সভাপতি মিজানুর রহমান চৌধুরী খোকন মিয়াসহ ৮ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়াও বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের ৩৬ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দীন চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, ওইদিন দুপুরে আসামিদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তফসিল ঘোষণার পর যাতে কোন অবস্থাতেই আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে সেজন্য পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

গ্রেফতারকৃত এজাহারনামীয় আসামিরা হলেন- জেলা বিএনপির সহসভাপতি এবং চকরিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও ডুলাহাজারা ইউপি পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী খোকন মিয়া, খুটাখালী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাফর আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদুল আলম, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক আবদুস ছালাম, ডুলাহাজারা ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুল আজিম, খুটাখালী ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা হেলাল উদ্দিন, ছাত্রদল নেতা সোহেল, বিএনপি কর্মী মফিজুর রহমান মুসা। এছাড়াও পলাতক রয়েছেন এজাহারভুক্ত পৌরসভা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফখরুদ্দীন ফরায়েজী, যুবদল নেতা ইব্রাহিম খলিল কাঁকন, বিএনপি নেতা সোয়াইবুল ইসলাম সবুজ, সালাহউদ্দিন, রানা হামিদ, বিএনপি নেতা মোবারক আলী, আনিছুর রহমান, আলী আকবর, হাসেম আলী, বখতিয়ার, হাবিব উল্লাহ, ইউসুফ, জয়নাল আবেদীন, মো. নজির আহমদ, ওবাইদুল্লাহ নূর সিদ্দিকী, মহিদুল ইসলাম।

এর আগে বুধবার রাতে ডুলাহাজারা এলাকার খোকন মিয়ার বাড়িতে নাশকতার পরিকল্পনা করার সময় গোপন বৈঠকে ঝটিকা অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় সেখান থেকে খোকন মিয়াসহ সাতজনকে গ্রেফতার এবং নাশকতার নির্দেশনা সম্বলিত হাতে লেখা ১০টি চিরকুট ও ১০টি লাঠি জব্দ করে পুলিশ।

জয়নিউজ/শহীদ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...