বোয়ালখালীর ফুটপাতে জমে উঠেছে শীতবস্ত্রের বিকিকিনি

0

গ্রামাঞ্চলে জেঁকে বসেছে শীত। দুপুর গড়িয়ে বিকেল নামতেই কুয়াশা ঘিরে ধরছে চারপাশ। রোদেলা দিনেও হিমেল বাতাস আঁটসাঁট করে দিচ্ছে গায়ের কাপড়।

শীতের দিনে হিম হিম আমেজে শীতের পোশাক কেনাকাটার ধুম পড়েছে বোয়ালখালীর ফুটপাতে। ফেরিওয়ালা-হকাররা শীত পোশাক নিয়ে ফুটপাতগুলো দখলে নিয়েছে। বিক্রিও মন্দ নয় বলে জানান গোমদন্ডী তুলাতলের ফুটপাতে বসা হকার আলী হোসেন, দিদারুল আলম, সাতকানিয়ার থেকে আসা ইদ্রিস।

গ্রামের বেশিরভাগ মানুষজন শীতের পোশাক কেনেন ফুটপাতে বসা হকারদের কাছ থেকেই। ক্রেতাদের চাহিদার কথা ভেবে তারা নিত্যনতুন শীতের পোশাক সংগ্রহ করেছেন। এসব ভাসমান হকারদের দোকানে ক্রেতার ভিড়ও রয়েছে বেশি। এখানে রয়েছে কাঁথা, সোয়েটার, কোট, হাত-পায়ের মোজা, জ্যাকেট, মোজা, কম্বল, চাদরসহ বিভিন্ন মোটা কাপড়ের পোশাক।

উপজেলার শাকপুরা, বেঙ্গুরা, কালাইয়ারহাট, কানুনগোপাড়া, ফুলতলসহ পৌর সদরের বিভিন্ন এলাকার ফুটপাতে শীতবস্ত্রের পসরা সাজিয়ে বসেছেন হকাররা। বাচ্চাদের বাহারি রঙের সোয়েটার, হাল ফ্যাশনের পোশাকও মিলছে তাতে। ফুটপাতে বসা হকার থেকে বাচ্চাদের জন্য কাপড় পছন্দ করছিলেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ফেরদৌস আরা । তিনি বলেন, ফুটপাতের হকারদের কাছে নানা রকমের শীতের পোশাক পাওয়া যায়। দামও নাগালের মধ্যে থাকে।

এবার শীতে জাতীয় নির্বাচন হওয়ায় ব্যবসা ভালো জমবে বলে আশা করছেন ব্যবসায়ীরা। কেননা প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণায় রাতদিন ব্যস্ত থাকবে মানুষ। ভোটারদের মন পেতে শীতবস্ত্র বিতরণ করবেন অনেক প্রার্থীরা। তাই গরম কাপড়ের ব্যবসা গরম হবে বলে জানালেন খাজা মার্কেটের আরেফা ফ্যাশনের সত্ত্বাধিকারী মুহাম্মদ আইয়ুব।

উপজেলার জব্বার মার্কেটের বিয়ে বাজারের পরিচালক মো. ফরিদুল আলম ও মো. আকবর বলেন, এবার শীতে বেশ ভালো কালেকশন রয়েছে। উন্নত মানের কোট, কম্বল, জ্যাকেট এবং শিশু ও মহিলাদের জন্য ভালো পণ্য বাজারে এসেছে।

জয়নিউজ/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...