পরকীয়ার প্রতিবাদ করায়…

0

বাঁশখালীতে নুর বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় তিনি খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী অটোরিকশা চালক মো. বেলালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গণ্ডামারা ইউনিয়নের পশ্চিম গণ্ডামারা গ্রামে রোববার (১৮ নভেম্বর) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। স্বামীর সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত প্রবাসীর স্ত্রীর ঘর থেকে সোমবার (১৯ নভেম্বর) ভোরে নুর বেগমের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, এক যুগ আগে গণ্ডামারা ইউনিয়নের মো. বেলাল উদ্দিনের সঙ্গে নুর বেগমের বিয়ে হয়। তাদের ৫ সন্তান রয়েছে। বেলাল পেশায় অটোরিকশা চালক। সম্প্রতি বাড়ির অদূরে প্রবাসীর স্ত্রী ফরিদা বেগম নামের এক গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে বেলাল। প্রায়সময় দিবাগত রাতে অটোরিকশায় গ্যাস নিতে চট্টগ্রাম শহরের গ্যাস পাম্পে যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বেরিয়ে পড়ত বেলাল। কিন্তু সে গ্যাস পাম্পে না গিয়ে বাড়ির অদূরে প্রবাসীর স্ত্রী ফরিদা বেগমের ঘরে যেত। একসময় বিষয়টি জানতে পারে নুর বেগম। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়াও হয়।

গত রোববার দিবাগত রাতে একই কায়দায় বেলাল ঘর থেকে বের হলে তার পিছু নেয় নুর বেগম। এদিকে নুর বেগমকে না পেয়ে তার সন্তানরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে। প্রতিবেশীরা নুর বেগমের স্বামীর পিছু নেওয়ার কথা জানতে পেরে প্রবাসীর স্ত্রী ফরিদা বেগমের বাড়িতে সন্ধান করে। ভোর ৫টায় প্রতিবেশীরা দেখেন, ফরিদার ঘরে নুর বেগমের লাশ। খবর দেওয়া হলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে দেয়।

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামাল হোসাইন জয়নিউজকে বলেন, পরকীয়ার কারণে নুর বেগম খুন হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখম রয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জয়নিউজ/উজ্জ্বল
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...