ডলারের মূল্য নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরকে চেম্বার সভাপতির চিঠি

0

টাকার বিপরীতে ডলারের অস্বাভাবিক মূল্য নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্ণর ফজলে কবিরের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি সভাপতি মাহবুবুল আলম

শনিবার (২৪ নভেম্বর) এক চিঠিতে তিনি এ আহ্বান জানান।

চিঠিতে চেম্বার সভাপতি উল্লেখ করেন, আমদানি পর্যায়ে ডলারের মূল্যে অস্থিতিশীলতা এবং খুচরা পর্যায়ে ডলারের উচ্চমূল্যের কারণে বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে অস্থির পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ব্যাংকগুলো আমদানিকারকদের কাছে বেশি মূল্যে ডলার বিক্রির বিষয় গোপন করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে কম মূল্য দেখিয়ে নথি দাখিল করছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ৮৩ দশমিক ৮৫ টাকায় ডলার বিক্রির নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও অনেক ব্যাংক সেই নির্দেশনা না মেনে আমদানি পর্যায়ে ৮৪ দশমিক ৬০ টাকা থেকে ৮৫ দশমিক ৪০ টাকা পর্যন্ত মূল্যে ডলার বিক্রি করছে। এমনকি খুচরা পর্যায়ে বেশকিছু ব্যাংক ৮৬ টাকা মূল্যে ডলার বিক্রি করছে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে আমদানিকৃত ভোগ্যপণ্য ও শিল্পের কাঁচামালের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, যার দায়ভার শেষ পর্যন্ত ভোক্তাকেই বহন করতে হবে।

তিনি  উল্লেখ করেন, আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতে ডলারের মূল্য ৭৪ রুপি থেকে  হ্রাস করে ৭১ রুপি নির্ধারণ করা হয়েছে। অথচ আমাদের দেশে ডলারের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে বৈদেশিক মুদ্রাবাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে, যা সামগ্রিক অর্থনীতিকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করছে। বর্তমান সরকার সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অত্যন্ত সফলভাবে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। সরকারের বিভিন্ন নীতির ফলশ্রতিতে মূল্যস্ফীতি যে হারে হ্রাস পেয়েছিল এর বিপরীতে বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বৈদেশিক মুদ্রাবাজারের এই ধরনের অস্থিরতা ও মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধি সরকারের ভাবমূর্তিকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে যা অনাকাঙ্খিত। তাই সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় দেশের অর্থনীতির স্বার্থে ডলারের মূল্য স্থিতিশীল ও যৌক্তিক পর্যায়ে রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংকের হস্তক্ষেপ অত্যাবশ্যক।

জয়নিউজ/ফয়সাল
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...