‘৩০০ আসনেই এমন হওয়া উচিত’

0

ঘড়ির কাঁটায় তখন বেলা ১২টা ২০। রাজধানী ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে পৌঁছেছে ‘সোনার বাংলা’ ট্রেন। সেই ট্রেন থেকে নেমে এলেন সাংসদ আবু রেজা নদভী। চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসন থেকে যাঁকে এবারও মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

পরিবারের সদস্যের সঙ্গে নদভী ট্রেন থেকে নামতেই চারিদিকে নেতা-কর্মীর ঢল। তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে ফুল হাতে সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। আছেন সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরাও।

বিশাল জমায়েতের মধ্যমণি নদভী। কেউ আলিঙ্গন করে, আবার কেউ বা ফুল দিয়ে তাঁকে স্বাগত জানাচ্ছেন। তবে এ ভিড়ের মাঝেই একজনের উপস্থিতি সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয়। তিনি হলেন চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক রাজনীতিবিদ অহীদ সিরাজ চৌধুরী।

এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন অহীদ সিরাজ চৌধুরী। কিন্তু নিজে প্রার্থী হওয়ার পরও মনোনয়ন পাওয়া অন্যজনকে শুভেচ্ছা জানাতে তিনি ছুটে এলেন রেলস্টেশনে! বিষয়টি দারুণ উৎসাহিত করেছে সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের।

নদভীকে শুভেচ্ছা জানাতে আসার ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে অহীদ সিরাজ চৌধুরী বলেন, ৩০০ আসনেই প্রার্থী আসলে জননেত্রী শেখ হাসিনা। তাই আমি যেটি করেছি এটি ৩০০ আসনেই হওয়া উচিত। প্রার্থী যে-ই হোক না কেন আমাদের দায়িত্ব নৌকাকে বিজয়ী করে আনা। দেশ ও জনগণের স্বার্থে নেত্রীকে আবারো প্রধানমন্ত্রী করা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। তাই আমরা এক ও অভিন্ন হয়ে নির্বাচনে কাজ করছি।

এদিকে নদভীকে শুভেচ্ছা জানাতে রেলস্টেশনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবির রাসেল, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক নুরুল আবসার, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য জসিম উদ্দিন, এওচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, সাতকানিয়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান নেজাম উদ্দিন, সোনাকানিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ, সদাহা ইউপি চেয়ারম্যান মোসাদ হোসেন চৌধুরী, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার উদ্দিন চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু পরিষদ জেদ্দা’র সহসভাপতি এহসান শিকদার, ব্যবসায়ী নেতা আব্দুল জলিল, আহমদ হোসেন, মুসলিম উদ্দিন, ইরফানুল হক চৌধুরী, ফরিদ আহমদ লিটন।

সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সারোয়ার উদ্দিন চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, রেলস্টেশনে সাংসদ নদভীকে শুভেচ্ছা জানাতে এসে অনন্য এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন অহীদ সিরাজ চৌধুরী। তাঁর এমন কর্মকাণ্ডে উজ্জীবিত সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার তৃণমূল নেতা-কর্মীরা।

দলের উর্ধ্বে কেউ নন মন্তব্য করে সারোয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সভানেত্রীর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে অহীদ সিরাজ চৌধুরী প্রমাণ করেছেন তিনিই নৌকার প্রকৃত সৈনিক। তাঁর মতো অন্যান্য আসনের প্রার্থীরাও যদি নেত্রীর সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানিয়ে নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করেন তাহলে নৌকার বিজয় নিশ্চিত।

প্রসঙ্গত, সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোয়ন ফরম নিয়েছিলেন ৯ জন। তারা হলেন ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নদভী, আবু সুফিয়ান, আমিনুল ইসলাম আমিন, এমএ মোতালেব, অ্যাডভোকেট একেএম সিরাজুল ইসলাম, মো. মাঈনুদ্দিন হাসান চৌধুরী, অ্যাডভোকেট কামরুন নাহার, ববিতা বড়ুয়া ও অহীদ সিরাজ চৌধুরী। এরমধ্যে নদভীকে মনোনয়ন দিয়ে ২৪ নভেম্বর চিঠি দেয় আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। দলের মনোনয়ন পেয়ে সোমবার (২৬ নভেম্বর) চট্টগ্রামে আসেন তিনি।

জয়নিউজ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...