হাটহাজারীতে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন মীর নাছির

0

হাটহাজারীতে (চট্টগ্রাম-৫) বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও মেয়র মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন। মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) এ খবর জানান তাঁর ছেলে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতা ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক ব্যারিস্টার মীর হেলাল উদ্দিন।

এর আগে এ আসনে ২০ দলীয় জোটের শরিক কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম মাঠে তৎপর ছিলেন। যে কারণে বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন কে পাচ্ছেন তা নিয়ে বেশ উৎকণ্ঠায় ছিল উভয় দলের নেতাকর্মীরা। অবশেষে এ আসনে বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মীর মোহাম্মদ নাছিরের নাম ঘোষণা করায় নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসব আমেজ বিরাজ করছে বলে জানান স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা।

১৯৭৬ সালে থেকে মীর নাছির জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক দল (জাগদল) এর চট্টগ্রামের প্রথম গঠিত থানা কমিটি হাটহাজারী থানার আহ্বায়ক ও উত্তর জেলার সদস্য ছিলেন। এরপর ১৯৭৮ জাগদলের হাটহাজারী থানার প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক নির্বাচিত হন। একই সময় তিনি জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট হাটহাজারী থানার আহ্বায়কও নির্বাচিত হন। ১৯৮২ সালে উত্তর জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পান। এর পাঁচ বছর পর ১৯৮৬ সালে উত্তর জেলা বিএনপির সম্মেলনের মাধ্যমে সভাপতি নির্বাচিত হন ও দীর্ঘ ৯ বছর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন। ১৯৯২ সালে পুনরায় উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি নির্বাচিত হন এবং ১৯৯৫ সালের মার্চ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়া ১৯৯৪ থেকে ১৯৯৬ এর আগস্ট পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৫ সালে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পান। ১৯৯৭ সালের ১ আগস্ট থেকে ২৬ মে ২০০৫ পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৭ পর্যন্ত তিনি নগর বিএনপির আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত প্রায় ৫ বছর নানা আন্দোলনে নেতৃত্ব প্রদান করেন ও সর্বদলীয় সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক এবং চট্টগ্রাম মহানগরের চার দলীয় ঐক্যজোটের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন। তাছাড়া ২০১০ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিনি বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এবং ২০১৬ সালে তিনি বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান।

জয়নিউজ/আবু তালেব/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...