প্রার্থীকে ফুল দিতে গেলেন আসামি!

0

ফেনী-৩ আসনের জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী লে. জেনারেল (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন লালখানবাজার ওয়ার্ড ছাত্রলীগ কর্মী দিদারুল ইসলাম আবির হত্যা মামলার প্রধান আসামি আবুল হাসানাত মো. বেলাল।

শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) জুমার নামাজের পর  নগরের গরীবউল্লাহ শাহ (র.) মাজার জিয়ারত করতে আসেন জেনারেল মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী। এসময় তাঁকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান আবির  হত্যা মামলার আসামিরা।

ফুল দেওয়ার ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী এবং এলাকার  গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে।

আবিরের বাবা নুরুল ইসলাম জয়নিউজকে বলেন, আমার সন্তানের হত্যাকারীরা প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করছে। পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। কিভাবে তারা একজন নির্বাচনের প্রার্থীকে ফুল দেয়, তা আমার প্রশ্ন।

মাসুদ চৌধুরীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে যান আবুল হাসানাত মো. বেলাল, মহিউদ্দীন বাবু, শওকত মো. পিতল শওকত। এরা সবাই আবির হত্যা মামলার আসামি।

খুনের মামলার আসামির কাছ থেকে ফুল নেওয়া প্রসঙ্গে মাসুদ চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, আমি জানতাম না বেলাল আসামি। তবে সে আমার পরিচিত হয়। যেহেতু  আমি এখন জনগণের মাঝে আসছি, তাই অনেকে আমাকে ফুল দিতে আসছে। অনেকে আমার সঙ্গে সেলফিও তোলে ।  এখন কে আসামি সেটা আমার জানার কথা নয়। তবে সে যদি এজাহারভুক্ত আসামি হয়, তার বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেবেন আদালত।

এ ব্যাপারে খুলশী থানার ওসি শেখ নাছির উদ্দিন জয়নিউজকে বলেন, আসামিরা মনে হয় জামিনে থাকতে পারে। যদি জামিনে না থাকে আইন মেনে সাক্ষী প্রমাণের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩.১০টায়  এইচএসসি ২য় বর্ষের মেধাবী ছাত্র  মো. দিদারুল ইসলাম আবিরকে লালখান বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ব্রিজের গোড়ায় পৌছলে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা বেলালের নেতৃত্বে  নৃশংসভাবে খুন করে। ৩০ সেপ্টেম্বর আবিরের বাবা নুরুল ইলাম আবুল হাসানাত বেলালকে প্রধান আসামি ও মহিউদ্দীন বাবু , শওকত মো. পিতল শওকতসহ  ২৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন খুলশি থানায়।

জয়নিউজ/কাউছার/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...