পেঁপে-পেয়ারা চুরির অজুহাতে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

0

চট্টগ্রাামের বাঁশখালী উপজেলার কালীপুর ইউনিয়নে পেঁপে ও পেয়ারা চুরির অজুহাতে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার ছুরিকাঘাতে মো. আবু হান ( ২০) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আবু হান পশ্চিম গুনারী জহুজ পাড়ার মোজ্জাফর আহমদের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যুবলীগ নেতা আক্কাস উদ্দিনের নিজস্ব পেঁপে ও পেয়ারা বাগান রয়েছে। প্রতিদিন ওই বাগান থেকে পেঁপে ও পেয়ারা চুরি হয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আবু হান ওই বাগানের পাশে বসে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছিল। আক্কাস উদ্দিন আবু হানকে পেঁপে চুরি করে বলে চ্যালেঞ্জ করে।

এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে আক্কাস কোমড়ে থাকা ছুরি দিয়ে জখম করে।

স্থানীয়রা আবু হানকে উদ্ধার করে প্রথমে বাঁশখালীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে সে মারা যান।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়। উত্তেজিত জনতা আক্কাস উদ্দিনের পেঁপে ও পেয়ারা বাগান ভাংচুর করে। তার ভাই মো. আমিনকেও গণপিটুনি দেয়। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

আবু হানের পিতা মোজ্জাফর আহমদ জয়নিউজকে বলেন, আমার ছেলের হত্যার বিচার চাই। আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে আক্কাস। আমার ছেলে একটা বেকারিতে চাকরি করতো। বাড়িতে বেড়াতে এসে সে খুন হয়েছে।

রামদাশ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. আতাউর রহমান চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, ‘ পেঁপে ও পেয়ারা চুরির অজুহাতে আক্কাস উদ্দিনই আবু হানকে খুন করেছে। আক্কাসকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

২০১০ সালে কালীপুর ইউনিয়ন পরিষদ হতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছিলেন যুবলীগ নেতা আক্কাস উদ্দিন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...