বিএনপির আমলে শুধু সন্ত্রাস আর লুটপাট হয়েছে

নির্বাচনি জনসভায় প্রধানমন্ত্রী

0

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের শাসনকালে দেশে কোনো উন্নয়ন হয়নি। শুধু সন্ত্রাস, দুর্নীতি আর লুটপাট হয়েছে। বিদেশ থেকে এতিমের জন্য টাকা এনে খালেদা জিয়া লুটে খেয়েছেন। সেই লুটপাটের কারণে আজ তিনি কারাগারে।

বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেলে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে এক নির্বাচনি জনসভায় জোট সরকারের আমলে বিএনপি-জামায়াতের কর্মকাণ্ড তুলে ধরে শেখ হাসিনা একথা বলেন।

বিগত নির্বাচনের পর বিএনপি-জামায়াতের পেট্রোল বোমা সন্ত্রাসের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকানোর নামে জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছিল তারা। পাঁচশ’র মতো মানুষ তারা পুড়িয়ে হত্যা করেছে। কোনো সুস্থ মানুষ এভাবে জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারে, এটা আমার জানা নেই। মানুষ পুড়িয়ে মারা, সন্ত্রাস, ভাঙচুর আর ধ্বংস ছাড়া তারা আর কিছুই করেনি।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সারাদেশে উন্নয়ন করেছি, উন্নয়ন করে যাচ্ছি। কিন্তু আমরা আপনাদের কাছে কী চাই? আমরা চাই নৌকা মার্কায় ভোট। নৌকা মার্কায় ভোট না দিলে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা থাকবে না। সুতরাং বিগত সময়ের মতো আপনারা নৌকায় ভোট দিন।

জনসভায় মানিকগঞ্জবাসীর উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, আগামীতে সরকার গঠন করতে পারলে কোনো ঘর অন্ধকারে থাকবে না। সবার ঘরে ঘরে আমরা বিদ্যুৎ পৌঁছে দেব। মানিকগঞ্জে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করে দেব। পদ্মা সেতুর কাজ চলছে। ওই পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয় পদ্মা সেতু করে দেব, যেন আপনাদের যাতায়াতে সুবিধা হয়।

আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয় ও জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মমতাজ বেগমকে পরিচয় করিয়ে দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে ফরিদপুরের ভাঙ্গা, কোমরপুর ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় তিনটি নির্বাচনি জনসভায় বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জয়নিউজ/পলাশ/জুলফিকার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...