সিলেটে অভিষেক ওয়ানডে স্মরণীয় করতে পারবে টাইগাররা?

0

বাংলাদেশের অন্যতম নয়নাভিরাম ভেন্যু সিলেট ক্রিকেট স্টেডিয়াম। বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজের ম্যাচ দিয়ে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই অভিষেক হচ্ছে এই মাঠের। এর আগে টি-টুয়েন্টি ও টেস্টের অভিষেক হয়েছে। যদিওবা টি-টুয়েন্টি ও টেস্ট অভিষেকে বাংলাদেশ হেরেছে। তাই সবার মনে প্রশ্ন জেগেছে, সিরিজ নির্ধারণী এই ম্যাচে উইন্ডিজের সঙ্গে জিতে অভিষেকটা স্মরণীয় করতে পারবে বাংলাদেশ?

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে এই মাঠে।  সিরিজের প্রথম ম্যাচ বাংলাদেশ ও দ্বিতীয় ম্যাচ উইন্ডিজ জিতে এ মুহূর্তে সিরিজ ১-১ এ সমতায় রয়েছে।

টি-টুয়েন্টিতে সিলেটের অভিষেক হয়েছিল সেই ২০১৪ সালে। তবে বাংলাদেশ এই মাঠে প্রথম খেলে চলতি বছরই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টুয়েন্টিতে। আর নভেম্বরে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের টেস্ট দিয়ে অভিষেক হয় ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণের। এবার পালা ওয়ানডের।

এই মাঠের প্রশংসা ঝরে পড়েছে টাইগার অধিনায়ক মাশরাফির কণ্ঠেও- বাংলাদেশের অন্যতম সেরা মাঠ এটি। সিলেট এমনিতেই সুন্দর। স্টেডিয়ামের আশেপাশের এলাকাটাও খুব সুন্দর।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েলও মুগ্ধ এই স্টেডিয়াম দেখে- এটা খুব সুন্দর স্টেডিয়াম। সুযোগ-সুবিধা দেখে আমি অভিভূত। দুর্দান্ত বলা যায়।

এর আগে প্রথম ম্যাচে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বলতে গেলে মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) ওশান থমাসের গতির সামনে বেশ ভুগেছে টাইগার ব্যাটসম্যানরা। তাই সিলেটেও পেসারদের গতি দিয়ে বাংলাদেশকে কুপোকাত করতে চায় সফরকারীরা।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...