নগরের উন্নয়নে আপনিও অংশীদার হোন: মেয়র

0

বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। নাগরিকদের সহযোগিতা ও কর প্রদানের কারণে আজকের এই উন্নতি। তিন বছর আগের চট্টগ্রাম আর বর্তমান চট্টগ্রামকে মেলালে আপনিও উন্নয়নের চিত্রটা ধরতে পারবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আমাদের এ উন্নয়ন। নগরের উন্নয়নের স্বার্থে কর প্রদানে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন এসব কথা বলেন।

বুধবার(৮ আগস্ট) বিকালে আগ্রাবাদে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে রাজস্ব বিভাগের ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের কর্ম পরিকল্পনা উপস্থাপন ও পৌরকর সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

অনুষ্ঠানে চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা সভাপতিত্বে রাজস্ব বিভাগের ২০১৮-১৯ সালের অর্থ বছরের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করেন প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ড. মুহম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান।

গত অর্থবছরের সরকারি পর্যায়ে সর্বোচ্চ করদাতা ৩টি প্রতিষ্ঠান হলো চট্টগ্রাম বন্দর, জেনারেল ইলেকট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কো. লি. ও চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তর। বেসরকারী পর্যায়ে সর্বোচ্চ করদাতা ৩ প্রতিষ্ঠান হলো মেসার্স ওশান কন্টেইনার লি., একে খান গ্রুপ ও চিটাগং জুট ম্যানুফেকচারিং।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চসিকের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, জোবাইরা নার্গিস খান, নিছার উদ্দিন আহমেদ, শফিউল আলম, সচিব মোহাম্মদ আবুল হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন চসিক যুগ্ম জেলা জজ মিসেস জাহানারা ফেরদৌস ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিসেস আফিয়া আখতার। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কর কর্মকর্তা মো. শাহ আলম, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, একেএম সালাউদ্দিন ও জানে আলম বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, কর্পোরেশনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও বিভাগীয় প্রধানগণ ।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...