বীরদের শ্রদ্ধা জানাতে শহিদ মিনারে জনস্রোত

0

কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক দিয়ে স্মরণ করা হয়েছে একাত্তরের বীর বাঙালিদের। যাঁরা লাল-সবুজের একটি পতাকার জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন। তাঁদের সেই ত্যাগেই ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিশ্বের মানচিত্রে সৃষ্টি হয় স্বাধীন এক দেশ ‘বাংলাদেশ’।

রোববার (১৬ ডিসেম্বর) ছিল বিজয়ের ৪৭তম বার্ষিকী। দিনটিতে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে নগরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে।

সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে দিবসের কর্মসূচির সূচনা হয় । নগর পুলিশের একটি চৌকস দলের সশস্ত্র অভিবাদনে বিজয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

সর্বপ্রথমে পুষ্পস্তবক নিবেদন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন চসিকের কাউন্সিলররা।

পরে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের পক্ষে থেকেও শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি) আসনের মহাজোট প্রার্থী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন ও অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাছনী, আইন বিষয়ক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইফতেখার চৌধুরী সাইমুল এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক। এ সময় নেতৃবৃন্দ দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

এদিকে সকাল থেকেই একে একে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আবদুল মান্নান, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি গোলাম ফারুখ, নগর পুলিশের কমিশনার মো.মাহবুবর রহমান, জেলা প্রশাসক ইলিয়াছ হোসেন ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক এম এ সালাম।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় সভাপতি মোছলেম উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের নেতৃত্বে।

অপরদিকে বিএনপির পক্ষ থেকেও পুষ্পস্তবক দিয়ে শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমানের নেতৃত্বে মহানগর বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এতে অংশ নেন।

জাতীয় পাটি, ওয়ার্কার্স পার্টি, বাসদ, জেলা আইনজীবী সমিতি, উদীচী, পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এদিকে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে নগরজুড়ে নানা আয়োজন করে সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। এসব আয়োজনের মধ্যে ছিল আলোচনা সভা, পথনাটক ও চিত্র প্রদর্শন।

এদিকে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে রোববার সকালে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করে বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা। এছাড়া সিটি করপোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয় বাকলিয়া সিটি করপোরেশনের স্টেডিয়ামে।

এর আগে সকালে এম এ আজিজ স্টেডিয়াম চত্বর থেকে বিজয় শোভাযাত্রা বের করে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদ।

জয়নিউজ/কাউছার

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...