বিএনপির ইশতেহারে ১৯ প্রতিশ্রুতি

0

ভিশন ২০৩০ এর আলোকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহার ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। ইশতেহারে ১৯টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) রাজধানীর গুলশানের লেকশোর হোটেলে ‘এগিয়ে যাব একসাথে, ভোট দেবো ধানের শীষে’- স্লোগানকে সামনে রেখে এই ইশতেহার ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ইশতেহারে ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ, অর্থনীতি, মুক্তিযোদ্ধা, যুব-নারী ও শিশু, শিক্ষা ও কর্মসংস্থান, জ্বালানি, তথ্যপ্রযুক্তি, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, বৈদেশিক ও প্রবাসী কল্যাণ, কৃষি ও শিল্প, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা, প্রতিরক্ষা ও পুলিশ, আবাসন, পেনশন ফান্ড ও রেশনিং ফান্ড প্রতিষ্ঠা, পরিবেশ, পররাষ্ট্র এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।
ইশতেহার ঘোষণাকালে উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মইন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবী ও দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।
বিএনপির ইশতেহারে রয়েছে:
১. গণতন্ত্রকে নিত্যদিনের চর্চার বিষয়ে পরিণত করা
২.সংবিধান সংশোধনীর মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার মধ্যে ভারসাম্য আনয়ন
৩. একাধারে পরপর দুইবারের বেশি প্রধানমন্ত্রী না করার বিধান
৪.মন্ত্রিসভাসহ প্রধানমন্ত্রীকে সংসদের কাছে দায়বদ্ধ থাকার বিষয়টি নিশ্চিতকরণ
৫.বিরোধীদল থেকে ডেপুটি স্পিকার নিয়োগ
৬. সংসদ সদস্যদের স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকার নিশ্চিত করা
৭.বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে যুক্ত করে সংসদে উচ্চকক্ষ প্রতিষ্ঠা করা
৮. গণভোট ব্যবস্থা পুনঃপ্রবর্তন
৯. বাংলাসহ অন্যান্য বিদেশি ভাষা শেখার জন্য অধিকতর সুযোগ সৃষ্টি
১০. স্বল্পসুদে শিক্ষাঋণ চালু
১১. বিদেশের খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রি গ্রহণে মেধাবীদের সাহায্য প্রদানে তহবিল গঠন
১২. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দেওয়া
১৩. মাদ্রাসা শিক্ষাকে আরও আধুনিক ও যুগোপযোগী করা। তাদের কারিকুলামে পেশাভিত্তিক ও বৃত্তিমূলক বিষয় অন্তর্ভূক্তকরণ
১৪. মসজিদের খতিবদের জন্য সম্মানজনক সম্মানি ভাতা চালু
১৫. প্রশ্নফাঁস বন্ধে আইনি ও প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা গ্রহণ
১৬. শিক্ষার্থীদের ওপর থেকে সকল ভ্যাট বাতিল। ভ্যাটবিরোধী, কোটা সংস্কার আন্দোলনে ক্ষতিগ্রস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের সকল মামলা প্রত্যাহার ও ক্ষতিপূরণ প্রদান
১৭. গরিব ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আসন সংরক্ষণ করা
১৮. পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষা ব্যবস্থা বিলোপ
১৯. প্রথম তিন বছরে মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে দুই লাখ মানুষকে চাকরি দেওয়া
২০. তরুণ দম্পতি ও উদ্যোক্তাদের জন্য ২০ বছর মেয়াদি ঋণ চালু
২১. আগামী ৫ বছরে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান
২২. শিক্ষিত বেকারদের বেকার ভাতা প্রদান।

জয়নিউজ/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...