লংগদুতে ৪৪ বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

0

রাঙামাটির লংগদুতে বিএনপির ৪৪ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা এবং নির্বাচনি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগে মামলা হয়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) এ মামলা দায়ের করেন।

মামলায় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বারেক দেওয়ান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমএ হালিম, উপজেলা যুবদলের সভাপতি জানে আলমসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৪৪ জন নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, লংগদু উপজেলার কালাপাকুজ্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মামলার বাদী হাবিবুর রহমানের ছেলে মিজানুর রহমানকে মারধর করে বিএনপি কর্মীরা। খবর পেয়ে হাবিবুর রহমান ছেলেকে উদ্ধার করতে গেলে তাদের ওপর হামলা করে বিএনপির লোকজন। এ ঘটনার একঘণ্টা পর বিএনপি নেতাকর্মীরা রশিদপুরের আওয়ামী লীগের নির্বাচনি অফিসে হামলা করে এবং জাতির জনক ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর করে।

উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমএ হালিম বলেন, ১০ ডিসেম্বর কালাপাকুজ্যায় পুরো ঘটনা আওয়ামী লীগের সাজানো। সেদিন মূলত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমানের ছেলে মিজানুর রহমান বিএনপিতে যোগদান করতে অফিসে আসেন। এ বিষয়টি শুনে তার বাবা ছেলেকে এখান থেকে নিয়ে যেতে দলবলসহ বিএনপি অফিসে হামলা করে। এ ঘটনায় আমাদের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তিনদিন পর আমাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমার বাড়ি লংগদু সদরে হলেও আমাকে কালাপাকুজ্যার ঘটনায় আসামি করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করেছি। আদালত মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) ২৪ জনের জামিন মঞ্জুর করেছেন।

জয়নিউজ/আরমান/বিশু/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...