বিশিষ্টজনদের চোখে আগামীর চট্টগ্রাম

0

নগরের বিশিষ্টজন ও তরুণদের নিয়ে হয়ে গেল আগামীর চট্টগ্রাম শীর্ষক ভিন্নধর্মী এক আয়োজন। মিডিয়াগ্রাফির বিশেষ এই আয়োজনে উপস্থিত তরুণদের উদ্দেশে ভবিষ্যৎ চট্টগ্রাম নিয়ে নগরের বিশিষ্টজনরা তাদের স্বপ্নের কথা তুলে ধরেন।

এসময় উপস্থিত কয়েকশ’ তরুণের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নগরপিতা আ জ ম নাছির উদ্দীন।

শনিবার (২২ ডিসেম্বর) নগরের অফিসার্স ক্লাবে আয়োজন করা হয় ভিন্নধর্মী এই নাগরিক সংলাপের।

তরুণদের উদ্দেশে মেয়র নাছির বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছেন। চট্টগ্রামের নাগরিক সুযোগ-সুবিধা এবং জীবনযাত্রার মান আরো উন্নত করার লক্ষ্যে ভবিষ্যতে সিটি গর্ভমেন্ট গঠন করা হবে।

চট্টগ্রামে বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, তারুণ্যের হাত ধরে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় আগামীর চট্টগ্রাম গড়তে তরুণদের নিয়ে কাজ করতে হবে।

চবির উপ-উপাচার্য শিরিন আক্তার বলেন, তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে সঠিক দিক নির্দেশনার মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব।

চবির কলা ও সমাজবিদ্যা অনুষদের ডিন এবং আগামীর চট্টগ্রামের আহ্বায়ক সেকান্দর চৌধুরী বলেন, উন্নয়নের যে ধারাবাহিকতা বর্তমানে চলছে তা অব্যাহত রাখতে হলে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

আগামীর চট্টগ্রামের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী বলেন, ‘বিভিন্ন শ্রেণী পেশা ও নতুন প্রজন্মের বুদ্ধিদীপ্ত ও উদ্ভাবনী চিন্তার প্রতিফলনে সত্যিকার গ্লোবাল সিটি প্রতিষ্ঠা সম্ভববাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে একটি ব্র্যান্ড হিসেবে তুলে ধরতে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে কাজে লাগানো ও এর মধ্য দিয়ে অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক সুযোগ ও সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হবে’

অনুষ্ঠানের আয়োজক মিডিয়াগ্রাফির প্রধান নির্বাহী মিল্টন দাশ বিজয় বলেন, চট্টগ্রাম আমাদের প্রাণের শহর। আমরা সবাই মিলে এ শহরকে সাজাতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি মতের পার্থক্য থাকলেও চট্টগ্রামের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা প্রসঙ্গে আমরা সবাই কিন্তু এক।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, হাসনাত চৌধুরী, আবুল হাশেম, হাসনাত চৌধুরী, দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুল, সাইফুল আলম বাবু, ডিজাইনার রওশন আরা, সাফকাত জাহান, আদিল কবির, ইমতিয়াজ জিহাদ, নোমান উল্লাহ বাহার ও আরাফাতুল ইসলাম।

অনুষ্ঠান আয়োজনে সহযোগিতায় ছিল টিম চিটাগাং, স্টার্টআপ চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ লাইভ, ইয়ুথ কাউন্সিল ও বাজারিও মিডিয়া।

জয়নিউজ/শহীদ/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...