জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত ইসি

0

জাতীয় নির্বাচনে অনিয়ম হবে না এমন নিশ্চয়তা দেয়ার সুযোগ নেই বলে সিইসি যে বক্তব্য দিয়েছেন, তার সঙ্গে একমত নন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

তিনি মনে করেন, সিইসির এই বক্তব্যে যারা অনিয়ম করতে চায় তারা উৎসাহী হবে। অন্যদিকে, নির্বাচন কমিশন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত বলেও জানান তিনি।

মাহবুব তালুকদার বলেন, সুন্দর নির্বাচন করতে যা যা করা প্রয়োজন আমি শেষ পর্যন্ত তা-ই করবো, পিছু হটবো না। রাষ্ট্র আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছে, তা আমি অক্ষরে অক্ষরে পালন করার চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, আমার দায়িত্ব ছিলো বরিশাল সিটি নির্বাচন দেখা । এ নির্বাচনে যা ঘটেছে তা নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি এ নির্বাচন নিয়ে কোনো মন্তব্য করবো না।

এদিকে, ধারাবাহিক কয়েকটি সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের পর নির্বাচন কমিশন এবার পূর্ণ মনোনিবেশ করেছে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের দিকে। এবারের নির্বাচনে ভোটার বেড়েছে প্রায় এক কোটি। বেড়েছে ভোটকেন্দ্রও। আর ভোটকেন্দ্র বাড়ায় সঙ্গত কারণে বেড়েছে ভোটগ্রহণ কর্মী।

আগামী ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে পারে। এ হিসেবে সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি গুছিয়ে নিতে চায় ইসি। এরমধ্যে থাকছে নির্বাচনী সামগ্রীসহ সব স্তরের কেনাকাটাসহ সামগ্রিক প্রস্তুতি। আসছে অক্টোবরে চলবে শুধু রুটিন কাজ। কারণ নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহের দিকে তফসিল ঘোষণার জন্য সম্ভাব্য সময় ধরা আছে।

খুলনা, গাজীপুর ও সর্বশেষ তিন সিটি (বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট) নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনাকে আমলে নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এরমধ্যে কয়েকটি কেন্দ্রে পড়েছে অস্বাভাবিক ভোট। তবে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে কমিশন।

চলতি মাসে শুরু হয়েছে ৩০০ সংসদীয় আসনের ভোট কেন্দ্র স্থাপনের কাজ। সেটির প্রাথমিক কাজ শেষে কিছু জায়গায় প্রকাশ পেয়েছে খসড়া ভোট কেন্দ্রের তালিকা।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...