রামগড়ে আ’লীগ-বিএনপি কর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

0

খাগড়াছড়ির রামগড়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনায় পুলিশসহ উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী জখম হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বেলা ১২টার দিকে শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়ার সমর্থনে গণসংযোগ ও প্রচারণা চালানোর সময় রামগড় বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে বিজিবি ও পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সাংসদ ওয়াদুদ ভূঁইয়া রামগড় বাজারে পথসভায় বক্তব্য রাখার সময় উভয় দলের কর্মী সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ইট পাটকেল লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায় দলীয় কর্মীরা।

রামগড় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল আলম আলমগীর সাংবাদিকদের জানান, তাদের দলের অন্তত ১০/১২ জন কর্মী ইটপাটকেলের আঘাতে জখম হয়েছেন এবং এসময় বিএনপির লোকজন আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের চেষ্টা করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম আশরাফুল আলম রাসেল জয়নিউজকে বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় রামগড় থানার সেকেন্ড অফিসার আশরাফ কামালসহ জখম হয়েছেন রামগড় আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল আলম আলমগীর, কাউন্সিলর বাদশা মিয়া, যুবলীগের আশিফ, মো. সেলিম ও মো. হারুন। এখন পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আছে।

এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, বিএনপি পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগের দলীয় লোকজনের ওপর হামলা করেছে। দোষীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে বলেন, তারা এখন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

জয়নিউজ/শ্যামল/বিশু/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...