পটিয়ায় স্কুলের নির্বাচন নিয়ে উত্তেজনা

0

পটিয়ায় স্কুলের অভিভাবক সদস্য নির্বাচন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। শুক্রবার দুপুরে কেলিশহর উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য নির্বাচন নিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

নির্বাচনে দুই প্যানেলের একটি পক্ষ সংবাদ সম্মেলন ডেকে প্রার্থীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা, অনিয়ম,দূর্নীতির অভিযোগ তুলেন।

নির্বাচনে দক্ষিণ জেলা আ’লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ তিমির বরণ চৌধুরী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিজন চক্রবর্ত্তী সমর্থিত প্যানেল নির্বাচনে লড়ছেন।

শনিবার (১১ আগস্ট) উপজেলার কেলিশহর উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনে দু’টি প্যানেলে ৮জন প্রার্থী রয়েছে। তার মধ্যে দক্ষিণ জেলা আ’লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ তিমির বরণ চৌধুরী সমর্থিত প্যানেলের উজ্জ্বল কুমার দে (ব্যালট নং-১), পুলক দেব (ব্যালট-৪), ডাঃ শিবু চক্রবর্ত্তী (ব্যালট-৮), সমর দে (ব্যালট-৯) ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিজন চক্রবর্ত্তী সমর্থিত প্যানেলের দোলন দাশ, পংকজ পান্থ টংকু, মোহাম্মদ ফারুক, শ্যামল দে।

শুক্রবার দুপুরে কেলিশহর উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক-অভিভাবিকা ও প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন ডেকে অভিভাবক সদস্য প্রার্থী শ্যামল দে’র বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেন। শ্যামল দে’র বিরুদ্ধে কেলিশহর ইউনিয়নের ধনা হত্যা মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। তাছাড়া সরকারি জায়গা দখল, মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মাসোহারা নেওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, কেলিশহর ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ও একটি প্যানেলের নির্বাচন পরিচালনা পরিষদের আহবায়ক ছিদ্দিক আহমদ, কেলিশহর আরবান কো-অপারেটিভ সোসাইটি ব্যাংকের সভাপতি অরুন দাশ চান্দু, সেক্রেটারি প্রদীপ কুমার দেব নারু, আ’লীগ নেতা আবুল হোসেন চৌধুরী মাখন, নির্বাচন পরিচালনার সদস্য সচিব তাপস দে আকাশ। সুষ্ঠভাবে নির্বাচন পরিচালনার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...