মাটিরাঙায় সরিষা-মৌ যৌথ চাষে সাফল্য

0

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙার গোমতি গড়গড়িয়া এলাকায় এক একর জায়গাজুড়ে সরিষা ও মধুর যৌথ চাষাবাদ করেছেন কৃষক সালাউদ্দিন। ভালো ফলনে তার মুখে ফুটেছে হাসি।

উপজেলার গোমতি ইউনিয়নের কৃষক সালাউদ্দিন বাড়ির পাশের ফসলি জমিতে সরিষার ক্ষেত গড়ে তোলেন। মাটিরাঙা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের সহযোগিতা ও পরামর্শে সরিষার আবাদ করেন তিনি।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ‘রোপণের প্রায় ৮০-৯০ দিনের মধ্যে সরিষার ফলন পাওয়া যায়। প্রতি গাছের উচ্চতা প্রায় ১২০ সে.মি. পর্যন্ত হয়।’

মাটিরাঙা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. জয়নাল আবেদীন জানান, পরীক্ষামূলকভাবে কৃষকরা সরিষা ও মৌ চাষ করছেন। সরিষা ক্ষেতের আশেপাশে মৌ বক্স থাকায় মৌমাছি সহজেই মধু সংগ্রহ করতে পারে। এতে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন।

সরিষা চাষি মো. সালাউদ্দিন জানান, ‘সরিষার ফলন ভালো হয়েছে। এছাড়া সরিষার পাশাপাশি মৌ বক্স বসিয়েছি। সরিষা ফুলের মধু কেজি প্রতি ১২০০ টাকা দামে বিক্রয় করছি। এতে দুইভাবে লাভবান হচ্ছি।

মাটিরাঙা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শাহ আলম মিয়া জানান, ‘উপজেলায় প্রায় ৪০ হেক্টর এলাকায় আবাদী জমিতে সরিষার চাষ হচ্ছে। পরীক্ষামূলকভাবে সরিষার পাশাপাশি মধু চাষকে আমরা উৎসাহিত করছি। সরিষা ও মধু বিক্রি করে লাভবান হচ্ছে কৃষকরা। ইতিমধ্যে প্রায় ১২০ কেজি মধু উৎপাদন করেছে কৃষকরা।’

জয়নিউজ/জাফর/বিশু/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...