‘দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু’

0

‘বঙ্গবন্ধু দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি চেয়েছিলেন। যদিও সেই পথ ছিল অনেক কঠিন, কন্টকাকীর্ণ ও দুর্গম। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে দেশ পরিচালনা করাই ছিল তাঁর লক্ষ্য। কিন্তু তাঁকে সেই সময়টা দেওয়া হয়নি। পাকিস্তানি ভাবধারার আদর্শের রাজনীতিতে বিশ্বাসীরা তাঁকে হত্যা করে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছিল।’

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাছির আরো বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর পিতার আদর্শে দেশ পরিচালনা করছেন। ক্ষমতার ধারাবাহিকতা থাকায় তিনি দেশকে সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে বিশ্বের দরবারে পরিচিত করেছেন। ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের, ২০৩১ সালের মধ্যে দারিদ্রমুক্ত ও ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলা শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বেই সম্ভব হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন একটি ঐতিহাসিক বিষয়। কারণ এর মধ্যে দিয়ে দেশে গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষা হয়েছে।’

নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনানের পরিচালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, খোরশেদ আলম সুজন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী।

সভায় উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, কোষাধ্যক্ষ ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, উপদেষ্টা শেখ মোহাম্মদ ইছহাক, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিকুল ইসলাম ফারুক, অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, জহরলাল হাজারী প্রমুখ।

জয়নিউজ/পার্থ নন্দী/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...