আজব গ্রামে নামের বাহার

0

ভারতের রাজস্থান। মরুভূমি-আজমীর শরীফ এমন অনেককিছুর জন্য রাজস্থান বিখ্যাত, তা হয়তো কারো অজানা নয়। কিন্তু অনেকে জানেন না রাজ্যের ছোট্ট একটি গ্রামের কথা। এই গ্রামে হাইকোর্ট আছে। প্রধানমন্ত্রী–-রাষ্ট্রপতিও আছেন। কংগ্রেস আছে। সোনিয়া, রাহুল, প্রিয়াঙ্কাও আছেন। আইজি আছেন, কালেক্টর আছেন। একটা গ্রামে এত নক্ষত্র সমাবেশ দেখে ঘাবড়ে যাওয়ারই কথা। কিন্তু এগুলো সবই মানুষের নাম। কারো নাম প্রধানমন্ত্রী তো কারো নাম রাষ্ট্রপতি। কারো নাম হাইকোর্ট তো কারো নাম কংগ্রেস। এভাবে নাম রাখতেই অভ্যস্ত সেই গ্রামের লোকজন।

রাজস্থানের বুন্দি জেলা সদর থেকে দশ কিলোমিটার দূরেই রামনগর। সেখানে প্রায় ৫০০ লোকের বাস। এটি শিক্ষায় ও অর্থনীতিতে অনেকটাই পিছিয়ে থাকা একটা গ্রাম। কিন্তু নামের এমন বাহারের জন্যই খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে এই গ্রাম।

এমন বিচিত্র নামকরণের ইতিহাস থেকে জানা যায়, যেমন এক শিশু জন্ম নেওয়ার ঠিক আগেই তার দাদু হাইকোর্ট থেকে জামিন পান। ফিরে এসে খুশি হয়ে তিনি নাতির নাম রেখে দিলেন হাইকোর্ট। ব্যাস, সেই থেকে নাতি হয়ে গেল হাইকোর্ট। একজন ইন্দিরা গান্ধীকে পছন্দ করতেন। ছেলের নাম রেখে দিলেন কংগ্রেস। এবার ওই পরিবারে যারা জন্মায় তাদের কারুর নাম হয় সোনিয়া, কারো নাম রাহুল বা প্রিয়াঙ্কা।

পাশের বরগনি, হনুমন্তপুরার অবস্থা আরও সাংঘাতিক। এখানে বানজারা সম্প্রদায়ের বাস। তারা আবার নাম রাখেন মোবাইল ফোনের নামে। কারও নাম নোকিয়া, তো কেউ স্যামসাং। শুধু তাই নয়, অ্যান্ড্রয়েড, সিম কার্ড, মিসড কল- এ রকম নামও দিব্যি চলছে। কাছেই আরেকটি গ্রাম আর্নিয়া। এখানে নামকরণ হয় আবার নানা মিষ্টির নামে। কারো নাম জলেবি, তো কারো নাম মিঠাই।

জয়নিউজ/পলাশ/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...