সীতাকুণ্ডে বিধবার বসতঘর গুঁড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় আটক ২

0

সীতাকুণ্ডে এক বিধবার বসতঘর গুঁড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় মোহাম্মদ ফারুক ও মোহাম্মদ আজিজ মিয়া নামে দুই সহোদরকে আটক করেছে পুলিশ। আটক দু’জন একই এলাকার মোহাম্মদ শফির ছেলে।

সোমবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে ছলিমপুর এলাকা থেকে দুইজনকে আটক করে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ।

বিধবা নুর জাহান অভিযোগ করেন, আমাদের বসতঘরটির জায়গা নিয়ে স্থানীয় ওসমান ফারুক, মোহাম্মদ মিয়া ও দিদারের সঙ্গে বিরোধ চলছে। আদালতে মামলাও চলমান রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তারা জঙ্গল ছলিমপুর থেকে সন্ত্রাসী নিয়ে এসে আমার বসতঘরটি ভাঙচুর করে টিন-বেড়াসহ আসবাবপত্র পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। এসময় ঘরে থাকা টাকা, মোবাইলসহ স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

এ ব্যাপারে বৃদ্ধা নুর জাহানের ছেলে বাদী হয়ে সোমবার রাতে সীতাকুণ্ড থানায় একটি মামলা (মামলা নং-১৪) দায়ের করেন।

সীতাকুণ্ডের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) শম্পা রানী সাহা জানান, জায়গা নিয়ে মামলা মোকাদ্দমা থাকতে পারে। তাই বলে রাতের আঁধারে বসতঘর গুঁড়িয়ে মালামাল লুট করে নেবে তা কখনো হতে পারে না। সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু যেই হোন না কেন তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে। তিনি আরো বলেন, বিধবা নুর জাহান খুবই নিরীহ। তিনি গুঁড়িয়ে দেওয়া বসতঘর আবার নির্মাণ করে দেবেন বলে বৃদ্ধাকে আশ্বস্ত করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শওকত বলেন, মামলা দায়েরের পর ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুইজনকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ভাঙচুর করার কিছু সরঞ্জামও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জয়নিউজ/সেকান্দর/বিশু

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...