নববধূকে ঘরে তোলা হলো না চিকিৎসক ফাহাদের

0

এক বছর তিন মাস আগে ডা. শারমিনের সঙ্গে পারিবারিকভাবে আকদ হয়েছিল ডা. ফাহাদের। আর মাসখানেকের মধ্যে বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান আয়োজন করে শারমিনকে নিজের বাড়িতে তুলে নেওয়ার কথা ছিল ফাহাদের পরিবারের। এ উপলক্ষে শারমিনের প্রবাসী বাবা আজাদ সম্প্রতি দেশেও এসেছিলেন। কিন্তু একটি দুর্ঘটনায় দুই পরিবারের সব রঙিন স্বপ্নের অবসান ঘটেছে।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) রাত পৌনে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সাতকানিয়ার হাসমতের দোকান এলাকায় হানিফ পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় ডা. ফাহাদ মারা যান।

জানা যায়, হাটহাজারী পৌরসভার রেলস্টেশন রোডের মরহুম শফিউল্লাহ মাস্টারের ছোট ছেলে মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী মো. আজাদের বড় মেয়ে ডা. জান্নাতুন নাঈম শারমিনের সঙ্গে চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকার নুরুল হক ঠিকাদারের বাড়ির মঞ্জুরুল হকের ছেলে ডা. জোবাইদুল হক ফাহাদের (৩৫) আকদ সম্পন্ন হয়েছিল। বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের কথা ছিল আর মাসখানেকের মধ্যে।

এ ব্যাপারে দোহাজারী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, চিকিৎসক ফাহাদ কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দায়িত্ব পালন শেষে মোটর সাইকেলে করে চট্টগ্রামে ফিরছিলেন। তিনি হাসমতের দোকান এলাকায় পৌঁছালে ওই মহাসড়কে চলাচলকারী হানিফ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসকে পাশ কাটাতে গেলে সেটি ফাহাদের মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। বাসটি আটক করা হলেও চালক পালিয়ে যান। ঘটনার দিন ডা. ফাহাদ কক্সবাজার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তার স্ত্রী ডা. শারমিনের ফুফাত ভাই ডা. রিসাতের বিয়েতে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছিলেন।

নিহত ডা. জোবাইদুল হক ফাহাদ কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে একটি এনজিও’র নিয়োগপ্রাপ্ত চিকিৎসক ছিলেন। তার বাড়ি হাটহাজারী উপজেলায় হলেও তিনি পরিবারের সঙ্গে নগরের চান্দগাঁও এলাকায় থাকতেন। কোরআন হাফেজ ডা. ফাহাদ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ৫৩তম ব্যাচের ছাত্র ছিলেন। এছাড়াও তিনি লাইটার ইয়ূথ ফাউন্ডেশনের কো-অর্ডিনেটরের দায়িত্ব পালনসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

এদিকে আকস্মিক এই মৃত্যুতে দুই পরিবারে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিশেষ করে ফাহাদের স্বজনদের কান্না আর আহাজারীতে ভারি হয়ে ওঠে তার বাড়ির চারপাশ।

জয়নিউজ/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...