বেড়েছে মাছের দাম, এসেছে গ্রীষ্মকালীন সবজি

0

গরমের তাপদাহ শুরু হওয়ার আগেই নগরের বাজারগুলোতে এসেছে গ্রীষ্মকালীন সবজি। তাই গ্রীষ্মকালীন সবজির দাম একটু বেশি থাকলেও শীতকালীন সবজির দাম বাড়েনি। কিন্তু সামুদ্রিক মাছের দাম স্থিতিশীল থাকলেও বেড়েছে মিঠা পানির মাছের দাম। তবে এ সপ্তাহে ক্রেতারা মাংস কিনতে পারবেন আগের দামেই।

শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) নগরের অন্যতম বড় কাঁচা বাজার কাজীর দেউরি ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।

বাজারে শীতের সবজির দাম অপরিবর্তিত থাকলেও গ্রীষ্মকালীন সবজির দাম একটু বেশি। বাজারে বরবটি প্রতিকেজি ৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৯০ টাকা, তিতকরলা ৭০টাকা, চিচিঙ্গা ৫০ টাকা।

এদিকে শীতের সবজি মধ্যে ফুলকপি প্রতি কেজি ২০ টাকা, বেগুন ৩০ টাকা, মুলা ২০ টাকা, বাঁধাকপি ২০ টাকা, টমেটো ২৫ টাকা, শিমের বিচি ৮০ টাকা, শিম ২৫ টাকা, লাউ ২৫ টাকা, কাঁচা মরিচ ৫০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩৫ টাকা, ধনে পাতা ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

কাজীর দেউরির সবজি বিক্রেতা কাসেম উদ্দিন জয়নিউজকে জানান, কুমিল্লা কিংবা দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে আসা সবজি থেকে দোহাজারির সবজির মান ভালো, দামও একটু বেশি থাকে। তবে শীতকালীন প্রায় সব ধরণের সবজির দাম বাড়েনি।

কাজীর দেউরি বাজরে মিঠা পানির মাছের দাম অপেক্ষাকৃত একটু বেশি এ সপ্তাহে। কাতালা প্রতি কেজি ৪০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৭৫ টাকা, রুই ৩০০ টাকা ও শিং ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে সামুদ্রিক মাছের মধ্যে লইট্টা কেজি প্রতি ১৪০ টাকা, , ইলিশ ৯০০ টাকা, কোরাল ৫০০ টাকা, পোয়া ৩০০ টাকা, রূপচান্দা ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছ বিক্রেতা হামিদ জয়নিউজকে জানান, এখানে তরতাজা মাছ পাওয়া যায়। তবে শীতের কারণে পুকুরের মাছ সংগ্রহ কমেছে। এতে মিঠা পানির মাছের দাম কিছুটা বেড়েছে।’

মাংসের মধ্যে, কেজি প্রতি ব্রয়লার মুরগী ১৩০ টাকা, সোনালি ২৪০ টাকা ও দেশি মুরগী ৪০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। গরু ও ছাগলের মাংসের দাম আগের মতোই। গরুর মাংসের দাম ৬৫০ টাকা, ছাগলের মংসের দাম ৮০০ থেকে ৮৫০ টাকায় বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

জয়নিউজ/পলাশ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...