মিতুকে প্রধান আসামি করে আকাশের মায়ের মামলা

0

চট্টগ্রামের তরুণ চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের (৩২) আত্মহত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুকে প্রধান আসামি করে ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নিহতের পরিবার। শুক্রবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে আকাশের মা জোবাইদা খানম বাদী হয়ে চান্দগাঁও থানায় মামলাটি করেন। মামলায় ৬ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও আরো ৩-৪ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন আকাশের স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতু, মিতুর বাবা আনিসুল হক চৌধুরী, মিতুর মা শামীম শেলী, মিতুর বোন সানজিলা হক চৌধুরী আলিশা, মিতুর দুই ‘বয়ফ্রেন্ড’ প্যাটেল ও মাহবুবুল আলম।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার জয়নিউজকে বলেন, ডা. আকাশের মা জোবাইদা খানম বাদী হয়ে হত্যা প্ররোচনার মামলা করেছেন। মামলায় আকাশের স্ত্রী মিতুকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। মিতুসহ মোট ৬ জনের নাম দেওয়া হয়েছে মামলায়। এছাড়া ৩-৪ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা রয়েছে।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) ভোরে স্ত্রীর ‘পরকীয়ার’ জেরে শরীরে ইনসুলিন ইনজেকশন পুশ করে আত্মহত্যা করেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা. মোস্তফা মোরশেদ আকাশ (৩২)। মৃত্যুর আগে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের স্ত্রী মিতুর সঙ্গে অন্য পুরুষের অন্তরঙ্গ ছবি ও চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করেন। সর্বশেষ ভোর ৪টা ৫২ মিনিটে নিজের স্ত্রীর সাথে একটি ছবি পোস্ট করে তিনি আত্মহত্যা করেন।

জয়নিউজ/রুবেল/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...