বিকট গন্ধের ডুরিয়ানের দাম কত জানেন !

0

ইন্দোনেশিয়ায় বিক্রি হচ্ছে চড়া দামের ফল ডুরিয়ান। কাঁঠালের মতো শরীরের এই ফল তার উৎকট গন্ধের জন্য পরিচিত। এই দুর্গন্ধময় ফল খাওয়ার ইচ্ছে হবে কার?

আশ্চর্যের বিষয় হলো, ইন্দোনেশিয়ায় ডুরিয়ান বেশ জনপ্রিয়। সেখানে তাসিকমালায়া শহরের প্লাজা এশিয়া শপিং সেন্টারে বিক্রি হচ্ছে জে-কুইন জাতের ডুরিয়ান। এই ডুরিয়ানকে খুব যত্নে লাল রেশমি কাপড়ে রাখা হয়েছে। একে ঘিরে আছে কাঁচের আবরণ। ফলটির দাম রাখা হচ্ছে ১৪ মিলিয়ন ইন্দোনেশিয়ান রুপি, যা ১০০০ মার্কিন ডলার বা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৮৩ হাজার টাকারও বেশি!

ইন্দোনেশিয়ায় এই ফলের চড়া দাম হলেও অনেক জায়গায় তার দুর্নাম। এর গন্ধের কারণে মাঝে মাঝেই ঘটে যায় গণ্ডগোল। কিছুদিন আগেই অস্ট্রেলিয়ায় এক ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাস থেকে সবাইকে বের করে দেওয়া হয় গ্যাস লিক হয়েছে ভেবে। পরে দেখা যায় গ্যাস লিক নয়, গন্ধটা আসছে আধাপচা এক টুকরো ডুরিয়ান থেকে! সিঙ্গাপুরে সাবওয়েতে ডুরিয়ান নিয়ে ওঠা নিষিদ্ধ। অনেক হোটেলেও তা নেওয়া যায় না। এমনকি গত বছর এক ইন্দোনেশিয়ান বিমানে ডুরিয়ানের গন্ধ ছড়িয়ে পড়ায় ফ্লাইট কিছু সময়ের জন্য থমকে যায়। এর গন্ধটাকে অনেকেই ময়লা মোজার গন্ধের সাথে তুলনা করেন।

জে-কুইন ধরনের ডুরিয়ানের দামটা সাধারণ ডুরিয়ানের তুলনায় দশ গুণেরও বেশি। তার কারণ হলো, এই ধরনের ডুরিয়ান প্রতি তিন বছরে ২০টি পাওয়া যায়। তা খুবই দুর্লভ। এর স্বাদটাও নাকি দারুণ, বাদাম আর মাখনের মতো। ইতোমধ্যেই ও শপিং সেন্টারে চড়া দামের চারটি ডুরিয়ানের মাঝে দুটি বিক্রি হয়ে গেছে।

জয়নিউজ/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...