অভুক্ত কেউ থাকলে খুঁজে বের করুন: প্রধানমন্ত্রী

0

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, খাদ্যে ভেজাল মেশানোও দুর্নীতির মধ্যে পড়ে। মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের মতো খাদ্যে যারা ভেজাল মেশাবে সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। আর সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স।

তিনি রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। কিন্তু নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করতে অনেক পথ অতিক্রম করতে হবে। এজন্য প্রয়োজন জনসচেতনতা। সরকার ২০১৩ সালে নিরাপদ খাদ্য আইন করেছে। এরপর এর বাস্তবায়নে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে ২০১৫ সালে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয়েছে। তারা বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। দেশে ২১ লাখ মেট্রিক টন খাদ্য মজুদের সক্ষমতা আছে। লক্ষ্য ২৭ লাখ মেট্রিক টনে নিয়ে যাওয়া। অভুক্ত কেউ থাকলে খুঁজে বের করুন, যত বরাদ্দ দরকার দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, নিরাপদ ও পুষ্টিসম্মত খাদ্য নিশ্চিত করতে কাজ করছে সরকার। সবার কাছে খাদ্য পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে এবং এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভেজাল খাবারের বিরুদ্ধে সমাজের মানুষকে সচেতন হতে হবে। বিষক্রিয়ায় দেশের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হোক, তা আমরা চাই না। খাদ্যে ভেজাল দেওয়া বন্ধ করতে হবে।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...