পানি দিতে দেরি হওয়ায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

0

লক্ষ্মীপুরে পানি দিতে দেরি হওয়ায় শিল্পী আক্তার নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে দেবরসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জের চরভূতা এলাকা থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত গৃহবধূ কুমিল্লার লালমাই উপজেলার আবদুল জাব্বারের মেয়ে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আমির হোসেন বাদী হয়ে গৃহবধূর দেবর নিরব হোসেন, শ্বশুর মোসলেম মিয়া ও শাশুড়িসহ তিনজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে সবাই।

নিহতের ভাই আমির হোসেন অভিযোগ করেন, তার বোনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়ে আমি সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছি।

নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, বুধবার দুপুরে শিল্পী আক্তারকে তার দেবর নিরব হোসেন পানি দিতে বলেন। এসময় গৃহবধূ বাড়ির পুকুরে কাজ করছিলেন। পরে পুকুর পাড়ে গিয়ে শিল্পী আক্তারকে দেবর নিরব হোসেন পানি দিতে দেরি হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করেন। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শিল্পীকে পিটিয়ে এবং তলপেটে লাথি মেরে হত্যা করে পুকুরপাড়ে ফেলে পালিয়ে যায় দেবর নিরব হোসেন। এসময় গৃহবধূর শ্বশুর-শাশুড়িও পালিয়ে যান বাড়ি থেকে। সন্ধ্যায় পুকুরপাড়ে গৃহবধূর লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এটি একটি হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে সবাই পলাতক রয়েছে। তাদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

জয়নিউজ/আতোয়ার/জুলফিকার

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...