সকালে বহিষ্কার, বিকেলে প্রত্যাহার

0

চন্দনাইশপরীক্ষায় নানা অনিয়মের অভিযোগে জোয়ারা ইসলামিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী, শিক্ষক ও অফিস সহকারীসহ ৮ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জন পরীক্ষার্থী, ৪ জন শিক্ষক ও ১ জন অফিস সহকারী। তবে একইদিন বিকেলে অভিযুক্ত ৪ শিক্ষক ও অফিস সহকারীর বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) এসএসসির গণিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কেন্দ্রের বাইরে ফাঁস, নকল ও কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগে চন্দনাইশ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিজাম উদ্দিন আহমদ পরীক্ষার্থী ও শিক্ষকদের বহিষ্কার করেন।

বহিষ্কৃত পরীক্ষার্থীদের মধ্যে জাফরাবাদ মাদ্রাসার পরীক্ষার্থী আরমানকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র কেন্দ্রের বাইরে ফাঁস করার অপরাধে তিন বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়। এছাড়া পাবলিক শিক্ষা আইনে মামলা করে তাকে পুলিশ হেফাজতে দেওয়া হয়। নকল করার অপরাধে জাফরাবাদ মাদ্রাসার ওসমান ও জাহাঙ্গীরিয়া মাদ্রাসার পরীক্ষার্থী মো. ফাহিম উদ্দিনকে বহিষ্কার করা হয়। এছাড়া পরীক্ষার হলে দায়িত্বে অবহেলার কারণে জোয়ারা মাদ্রাসার অফিস সহকারী আবদুল মাজেদ, শিক্ষক এম এ জলিল, নুরুল আমীন, ইদ্রিস বেলালী ও মোর্শেদুল হককে বহিষ্কার করা হয়েছে। বিকেলে তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

জয়নিউজ/রাজ্জাক/রুবেল
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...