ওস্তাদের মার শেষ রাতে!

0

সমালোচনার জবাব বুঝি এভাবেই দিতে হয়! তামিম, আসলেই আপনি পারেন! শেরে বাংলার ২৫ হাজারের সঙ্গে টিভির সামনে কোটি দর্শককে স্বাক্ষী রেখে অবিশ্বাস্য এক ইনিংস খেললেন বন্দরনগরের বাঘ!

সে কী সাহস, স্পর্ধা তামিমের!

সবাই জানতো তিনি জানেন কিভাবে ২০ ওভারের যুদ্ধজয় করতে হয়। তবু অপেক্ষা ছিল এমন একটা সাইক্লোনের, যার তীব্রতায় ভেসে যাবে সব প্রশ্ন। অবশেষে এসেছে সেই দিন। বিপিএলের আন্তর্জাতিক মঞ্চের ফাইনালে ৬১ বলে ১৪১ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে তামিম লিখলেন নতুন ইতিহাস। বাংলাদেশের হয়ে খেললেন টি২০-তে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

শুক্রবারের রান উৎসবে তামিম প্রমাণ করে দিলেন, ওস্তাদের মার শেষ রাতে!

তামিমের ব্যাটিং ঝড়ের শুরুটা সুনীল নারিনকে দিয়ে। চতুর্থ ওভারে লং অনের উপর দিয়ে ছয় দিয়ে হাত খোলেন তিনি। পরের ওভারে সাকিবকে পর পর দুই বলে দুটি চার।

এরপর আর পেছনে ফিরতে হয়নি তাকে। শুভাগত হোমকে পর পর দারুণ দুই স্ট্রোকে ছয়-চারের পর মাপা সিঙ্গেলে পঞ্চাশের ঘরে পৌঁছান তামিম। এরপর অপর প্রান্তে এনামুল-ইমরুলদের শ্লথ ইনিংসের মাঝেই চলছিল তামিমের ঝড়।

১৪ ওভারে দেশের অন্যতম সেরা পেসার রুবেল হোসেনের ওপর চড়াও হন তামিম। দুই চার ও দুই ছয়ে ওই ওভারে আসে ২৩ রান। তামিম একাই নেন ২২ রান।

এরপরের দুর্ভাগা বোলারের নাম আন্দ্রে রাসেল। বিশ্বের অন্যতম এই সেরা অলরাউন্ডারের করা ১৬তম ওভারে আবার দুই চার ও দুই ছয়ে তামিম করেন ২২ রান। ওই ওভারেই সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত ১০ চার ও ১১ ছয়ে ১৪১ রানে অপরাজিত থাকেন দেশসেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল খান। কুমিল্লাকে এনে দেন ১৯৯ রানের বড় সংগ্রহ।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...