সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

0

জাতীয় সংকট ও জরুরি মুহূর্তে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর (ভিডিপি) ভূমিকা প্রশংসনীয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর (ভিডিপি) ৩৯তম জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধন ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সফিপুর আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। পরে কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ শেষে বীরত্বপূর্ণ ও সেবাসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আনসার-ভিডিপি সদস্যদের পদক প্রদান করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের আনসার বাহিনী দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে যথেষ্ট পারদর্শিতা দেখাচ্ছে। একইসঙ্গে দেশে-বিদেশে অনেক সুনাম অর্জন করছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় সংকটকালে ও জরুরি মুহূর্তে আপনারা সফলতার পরিচয় দিয়ে আসছেন। প্রতিবছর দেশের জাতীয়, সামাজিক ও ধর্মীয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে এ বাহিনীর সদস্যরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন।

আনসার বাহিনীর উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের কথা উল্লেখ করেন তিনি। এ সময় প্রধানমন্ত্রী ১৯৯৮ সালে এ বাহিনীকে জাতীয় পতাকা প্রদান করার কথা জানান।

দেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ ও মাদক প্রতিরোধে আনসার বাহিনীর সদস্যরা আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, ১৯৮০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ আনসার বাহিনী গঠন করা হয়। এর পর থেকে প্রতিবছর এইদিনে বাহিনীর জাতীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জয়নিউজ/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...