পরকীয়া ও শাশুড়ি হত্যায় অভিযুক্ত পলাতক পুত্রবধূ গ্রেফতার

0

রাউজানে পরকীয়াকে কেন্দ্র করে শাশুড়ি নুর আয়েশা হত্যা মামলার পলাতক আসামি কুসুম আকতারকে (২৮) গ্রেফতার করা হয়েছে। ১৩ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) রাতে চট্টগ্রামের পাটিয়া পৌর এলাকার এক ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে রাউজান থানার এসআই নুরনবী।
এদিকে ১৪ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) গ্রেফতার হওয়া কুসুমকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাউজানের ৯নং পাহাড়তলী ইউনিয়নের উনসত্তরপাড়া এলাকার কুয়েত প্রবাসী আবদুল মুবিন প্রকাশ মুন্নার স্ত্রী কুসুম আকতারের সঙ্গে একই এলাকার বাসিন্দা হানিফের (মুন্নার মামাত ভাই) অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে । ২০১৫ সালের ২১ সেপ্টেম্বর কুসুম আকতারের সঙ্গে হানিফকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পান কুসুমের শাশুড়ি নুর আয়েশা। এ দৃশ্য দেখার পর কুসুম ও হানিফ শ্বাসরুদ্ধ করে আয়েশাকে হত্যা করে । এরপর অসুস্থ হয়ে আয়েশার মৃত্যু হয়েছে জানিয়ে দ্রুত লাশ দাফন করে ফেলে।

এদিকে ঘটনার পর প্রবাসী মুন্না দেশে এসে এলাকার লোকজনের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জানতে পারেন। ২০১৫ সালের ১৭ অক্টোবর তিনি রাউজান থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় স্ত্রী কুসুম আকতার ও মামাত ভাই হানিফকে আসামি করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের ৪৫ দিন পর আদালতের নির্দেশে আয়েশার লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়নাতদন্ত রির্পোটে আয়েশাকে হত্যা করা হয় বলে রিপোর্ট দেওয়া হয়।

হত্যাকাণ্ডের পরপর এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যান কুসুম ও হানিফ। এরমধ্যে ১৩ ফেব্রুয়ারি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুসুমকে গ্রেফতার করে রাউজান থানা পুলিশ।

জয়নিউজ/শফিউল আলম

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...