মানবিক কাজে সামাজিক সংগঠনগুলোর ভূমিকা প্রশংসনীয়: ভূমিমন্ত্রী

0

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এমপি বলেছেন, চট্টগ্রামে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সামাজিক সংগঠন সমাজ ও মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। যাদের কর্মতৎপরতা যথেষ্ট প্রশংসনীয়। কিন্তু তাদের কাজগুলো জনসম্মুখে আসার সুযোগ ছিল না। পূর্বকোণ তাদের এক ছাতার নিচে এনে মিলনমেলা করেছে। তারা এর মধ্যদিয়ে অনুপ্রাণিত হবেন। দর্শনার্থীরা তাদের দেখে মানবিক কাজে উদ্বুদ্ধ হবেন।

শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) নাসিরাবাদ বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দৈনিক পূর্বকোণ আয়োজিত ‘পরিবর্তনের কারিগর’-এ অংশগ্রহণকারী মানবিক মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ব্যতিক্রমধর্মী এ ধরনের মেলা দেশের জন্য প্রথম উল্লেখ করে মন্ত্রী মেলার আয়োজক পূর্বকোণ পরিবারকে ধন্যবাদ জানান।

মন্ত্রী জাবেদ বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধনের পর মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখে অংশগ্রহণকারীদের সঙ্গে কথা বলেন। এর আগে সকাল ৯টায় জমিয়তুল ফালাহ মোড় থেকে বর্ণাঢ্য সাইকেল র‌্যালি শুরু হয়ে মেলা প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। সকাল থেকে দিনব্যাপী এ মেলায় দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল। তারা পরিচিত হয়েছেন পরিবর্তনের কারিগরদের সঙ্গে। জানার সুযোগ পেয়েছেন তাদের কাজের ক্ষেত্র, কর্মকৌশল এবং কাজের এলাকা নিয়ে।

দৈনিক পূর্বকোণের পরিচালনা সম্পাদক, প্রকাশক ও পূর্বকোণ গ্রুপের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৈনিক পূর্বকোণের সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দিন চৌধুরী।

অংশগ্রহণকারীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন কর আপিল ট্রাইব্যুনালের কমিশনার বাদল সৈয়দ। বিকেলে প্রেরণাদায়ক বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটর উপাচার্য প্রফেসর ড. সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী এবং আইআইইউসিসি’র উপাচার্য প্রফেসর ড. কে এম গোলাম মহিউদ্দিন।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পূর্বকোণের পরিচালক জাসির চৌধুরী, শুলকবহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলম, দৈনিক পূর্বকোণের চিফ রিপোর্টার নওশের আলী খান, সিনিয়র সাব এডিটর মোরশেদ আলম।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেবুন নাহার শারমিন ও মাসুম বিল্লাহ আরিফ।

এসময় মন্ত্রী জাবেদ পূর্বকোণের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ইউসুফ চৌধুরীকে স্মরণ করে বলেন, তিনি আমাদের চট্টগ্রামের একজন অত্যন্ত বড় মুরব্বী ছিলেন। তাঁর অবদান ও সেবা চট্টগ্রামবাসী স্মরণ করে।

পূর্বকোণের মরহুম সম্পাদক স্থপতি তছলিম উদ্দিন চৌধুরীকে স্মরণ করে তিনি বলেন, তছলিম ভাইও ভালো কাজ করতে চাইতেন, ভালো কাজ করেছেন। তিনি সবসময় বলতেন, যদি কোন ভালো কাজের সুযোগ থাকে তুমি আমাকে একটু পাশে রাখবা বা আমারও যদি কোন সুযোগ থাকে আমিও কিন্তু তোমাকে পাশে রাখব।

স্বাগত বক্তব্যে দৈনিক পূর্বকোণ সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দিন চৌধুরী বলেন, দৈনিক পূর্বকোণ চট্টগ্রামের উন্নয়ন ও আলোকিত সমাজ গঠনে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারী কলেজ থেকে ভেটেরিনারী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, ডেইরী শিল্পের বিপ্লব, নগরের বিলবোর্ড উচ্ছেদ পূর্বকোণেরই প্রচেষ্টার ফসল। তারই ধারাবাহিকতায় এই মানবিক মেলার আয়োজন।

ভূমিমন্ত্রী মেলার উদ্বোধন শেষে মেলায় সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠান চিটাগং কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের (সিসিএল) কর্ণধার শ্যামল পালিত, আমরা নেটওয়ার্কের রিজিওনাল হেড শোভন সেনগুপ্ত এবং ইউনিট্রেডের সিইও মোহাম্মদ ওসমান গণির হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন। পরিবর্তনের কারিগর অনুষ্ঠানে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ পূর্বকোণের সিনিয়র রিপোর্টার সাইফুল আলম, ফটোগ্রাফার মিয়া আলতাফ, সরোয়ার হোসেন এবং কম্পিউটার বিভাগের নাহিদুল ওসমানের হাতেও মন্ত্রী ক্রেস্ট তুলে দেন।

পরে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

জয়নিউজ/কাউছার/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...