ছাত্ররাজনীতি এখন পেশিশক্তির হাতে: ব্যারিস্টার আনিস

0

ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি বলেন, ছাত্ররাজনীতির কারণে আমরা ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা আন্দোলন পেয়েছি। তখন যেসব ছাত্ররা রাজনীতি করত তারা ছাত্র ছিল। কিন্তু এখন ছাত্ররাজনীতি পেশিশক্তির হাতে চলে গেছে।

শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ অডিটোরিয়ামে হাটহাজারী সেন্ট্রাল স্টুডেন্টস ফোরামের দুই যুগপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে সকাল ১০টার দিকে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে কেক কেটে মূল অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদ (চাকসু) নির্বাচন প্রসঙ্গে আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, আজকে পুরো ছাত্রসমাজের যে সমস্যা, তা উদ্ভুত হয়েছে মাত্র ২০০ জন ছাত্রের জন্য। তাদেরকে বোঝাতে হবে যে পেশিশক্তি দিয়েই সবকিছু হবে না। চাকসু নির্বাচনের মাধ্যমে যদি ভাল নেতৃত্ব গড়ে তুলতে না পারি, তাহলে সেই চাকসু নির্বাচন ব্যর্থ। আমরা চাই, চাকসু নির্বাচনের মাধ্যমে যোগ্য ও দক্ষ নেতৃত্ব গড়ে উঠুক।

তিনি বলেন, ভবিষ্যৎ আগামীতে নয়, ভবিষ্যৎ আজকে। আমাকে আজকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে আমি কী চাই। আমার ভবিষ্যৎ নির্ভর করে আজকের সিদ্ধান্তের ওপর।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক শিরীণ আখতার, ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শামীম, বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক আলী আজগর চৌধুরী।

সমাপনী বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কার্য পরিষদের সভাপতি সালাউদ্দিন চৌধুরী।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৫ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত হাটহাজারী উপজেলা শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় যাত্রা শুরু করে হাটহাজারী সেন্ট্রাল স্টুডেন্টস ফোরাম।

জয়নিউজ/নবাব/বিশু/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...