হারের বৃত্তে বাংলাদেশ

0

দ্বিতীয় ম্যাচে সিরিজে টিকে থাকার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নেমেছিল মাশরাফি বাহিনী। কিন্তু বিরুদ্ধ কন্ডিশনে তা আর পারা হয়ে ওঠেনি। যথারীতি বড় হারই জুটল বাংলাদেশের। এককথায়, নেপিয়ারের প্রথম ম্যাচের পুনরাবৃত্তিই ঘটল ক্রাইস্টচার্চে। স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের কাছে টাইগাররা হেরেছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দিনের শুরুতে টস হেরে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ পাওয়া বাংলাদেশের গল্পটা ছিল নেপিয়ারের মতোই।

তামিম ৫ আর লিটন ১ রানে ফিরে গেলেও আশা হয়ে ছিলেন সৌম্য। ২২ রানে সেই সৌম্য আর ২৪ রান করে মুশফিক ও ৭ রানে মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে আবারও শংকা জাগে অল্প রানে গুটিয়ে যাওয়ার। যদিও আবারো ত্রাতা হয়ে দেখা দেন মোহাম্মদ মিঠুন, ব্যাক টু ব্যাক ফিফটি করে তিনি আউট হয়েছেন ৫৭ রান করে। সাব্বির করেন ৪৩ রান। এছাড়াও মিরাজ ১৬, সাইফুদ্দিন ১০, অধিনায়ক মাশরাফি ১৩, মোস্তাফিজ করেন ৫ রান। ১৭টি ওয়াইডসহ অতিরিক্ত থেকে এসেছে ২৩ রান।

৪৯.৪ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ২২৬ রান।

জবাব দিতে নেমে ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি করে দলকে সহজ জয় পাইয়ে দিয়েছেন কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল। আর তাতেই তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করেছে কিউইরা (২-০)।

২২৭ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নামে নিউজিল্যান্ড। অষ্টম ওভারে দলীয় ৪৫ রানের মাথায় মোস্তাফিজ ফিরিয়ে দেন ওপেনার হেনরি নিকোলসকে। বাউন্ডারি লাইনে লিটন দাসের তালুবন্দি হওয়ার আগে তিনি করেন ১৪ রান। এরপর জুটি গড়েন ওপেনার মার্টিন গাপটিল এবং দলপতি কেন উইলিয়ামসন। দলীয় ১৮৮ রানের মাথায় কিউইরা হারায় গাপটিলকে।

আগের ম্যাচেও সেঞ্চুরি করেছিলেন গাপটিল। শনিবার তিনি করেন তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৬তম সেঞ্চুরি। ইনিংসের ২৯তম ওভারে মোস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকারে ফেরার আগে তিনি ৮৮ বলে করেন ১১৮ রান। এই সেঞ্চুরিয়ানের ব্যাট থেকে আসে ১৪টি চার আর ৪টি ছক্কা।

দলপতি কেন উইলিয়ামসন এবং রস টেলর পরের পথটা সহজেই পাড়ি দেন। এ জুটিতে আসে ৪৪ বলে অবিচ্ছিন্ন ৪১ রান। উইলিয়ামসন ৮৬ বলে তিনটি চারের সাহায্যে ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন। রস টেলর ২০ বলে তিনটি চারের সাহায্যে ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন। মোস্তাফিজ ৯ ওভারে ৪২ রানে দুটি উইকেট নেন।

নিউজিল্যান্ডের লকি ফার্গুসন তিনটি, জেমস নিশাম দুটি, টড অ্যাসল দুটি করে উইকেট তুলে নেন। এছাড়া, একটি করে উইকেট পান ম্যাট হেনরি, ট্রেন্ট বোল্ট এবং কলিন ডি গ্রান্ডহোম।

আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি সিরিজের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড।

জয়নিউজ/পার্থ নন্দী
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...