নারায়ণগঞ্জ রণক্ষেত্র,  কাউন্সিলরসহ আটক ২২

0

নারায়ণগঞ্জ শহরের নলুয়া এলাকায় একটি মসজিদের কমিটি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ব্যাপক সংঘর্ষ  হয়েছে। এ ঘটনায় ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবির হেসেন ও সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নাসহ ২২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মুন্না মহানগর শ্রমিক লীগের সেক্রেটারি।

সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ভোরে নলুয়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর আগে রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে মসজিদ কমিটি নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়।

জানা গেছে, ১৮নং ওয়ার্ডে নলুয়া জামে মসজিদ কমিটি নিয়ে কয়েকদিন ধরে বর্তমান কাউন্সিলর কবির হোসেনের সঙ্গে সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নার বিরোধ চলে আসছিল। রোববার রাত ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত উভয় গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। উভয় গ্রুপের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়। এ সময় কয়েকজন পুলিশও  আহত হয়।

নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় দায়ের করা একটি মামলায় কামরুল হাসান মুন্নার বিরুদ্ধে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় মুন্না ছাড়াও রকিবুল হাসান লিয়ন, হুমায়ন কবির ও শ্যামল শীলকে আসামি করা হয়েছে। তাদের সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

অপর একটি মামলায় কাউন্সিলর কবির হোসেন, বিপু, কালা ফারুক, আমিন, ওবায়দুল্লাহ, সাহাবুদ্দিন, সুজন মিয়াসহ ১৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। কবিরের বিরুদ্ধেও ধারালো অস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম ২২ জনকে গ্রেপ্তারের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

জয়নিউজ/অভিজিত/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...