বাংলা বিকৃতিতে হাইকোর্টের অসন্তোষ

0

কোকাকোলার বাংলা বোতলের মাধ্যমে কথ্য ভাষার বিকৃতি হচ্ছে মন্তব্য করে এই ধরনের প্রচারণায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন উচ্চ আদালত।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) আরো শুনানি শেষে এ বিষয়ে চূড়ান্ত রায় দেওয়া হবে।

বোতলের গায়ে বিভ্রান্তিকর বাংলা শব্দ ব্যবহার বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিটের শুনানিতে সোমবার (১১ মার্চ) বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের বেঞ্চে বলেছেন, কথ্য ভাষার এমন বিকৃত প্রচারণা বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করবে না।

কোকাকোলা ভুল বাংলা প্রচার করছে। বিকৃত বাংলা লেখা কোকাকোলার বোতলগুলো বাজার থেকে সরিয়ে ফেলতে হবে।

শুনানিতে হাইকোর্ট আরও বলেন, কোকাকোলা শব্দ বিকৃতিকে আরও প্রচারণা চালাচ্ছে, যা বাংলা ভাষার মর্যাদাহানি করছে। এ ধরনের শব্দ বিকৃতি নতুন প্রজন্মের ওপর স্থায়ী প্রভাব ফেলবে।

এরআগে ২৭ ফেব্রুয়ারি কোকাকোলার বিরুদ্ধে বাংলা বিকৃতিতে রিট করেছিলেন আইনজীবী মনিরুজ্জামান রানা। কোকাকোলার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার তানজিম উল আলম।

জানা যায়, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কোকাকোলা বাংলাদেশ লিমিটেড মাসব্যাপী ‘বাংলা এখন, বাংলা তখন’ ক্যাম্পেইন করে। ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে প্রতিটি কোকাকোলার বোতলে একটি করে বাংলা শব্দ সমসাময়িক ব্যবহারিক অর্থ ও আভিধানিক অর্থসহ লেবেলে দেখা যায় এবং কোকা-কোলা এ রকম ২১টি শব্দ ব্যবহার করছে। এ ধরনের শব্দগুলোর মধ্যে রয়েছে- ব্যাপক, জটিল, কড়া, প্যারা, ভাব এর মতো আরো অনেক শব্দ ব্যবহৃত হয়েছে।

জয়নিউজ/অভিজিত/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...