চবিতে ছাত্রজোটের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা

0

ডাকসু নির্বাচনে অনিয়মের প্রতিবাদ ও চাকসু নির্বাচনের দাবিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) প্রগতিশীল ছাত্রজোটের মিছিলে হামলা করেছে ছাত্রলীগ। এতে ছাত্রীসহ ৫ জন কর্মী আহত হন।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চাকসুর সামনে থেকে প্রগতিশীল ছাত্রজোট ও সাম্রাজ্যবাদবিরোধী ছাত্রঐক্যের ব্যানারে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি মুক্তমঞ্চের কাছে এলে  ছাত্রলীগের প্রায় অর্ধশত নেতাকর্মী লাঠিসোটা নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এতে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের ৫ কর্মী আহত হন।

আহতরা হলেন চবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি আবিদ, অর্থনীতি বিভাগের রাজেশ, জান্নাত মুমু, সায়মা আক্তার শিমু ও নাট্যকলা বিভাগের ওয়াসি। তাদের বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

হামলার শিকার সংগঠনটির নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, ডাকসু নির্বাচনে অনিয়ম ও প্রহসনের প্রতিবাদ এবং চাকসু নির্বাচনের দাবিতে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করে। ছাত্রীসহ সকলকেই এলোপাথাড়ি মারধর শুরু করে তারা। শুধু তাই নয়, ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে অশ্লীল ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজও করে তারা।

প্রগতিশীল ছাত্রজোট নেত্রী আশরাফি নিতু বলেন, হামলাকারীদের মধ্যে ৩ জনকে আমরা চিনতে পেরেছি। তারা হলো ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের এসকে রনি এবং পদার্থবিদ্যা বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের আব্দুল আলিম ও আদনান।

চবি ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুল জয়নিউজকে বলেন, তারা জননেত্রী শেখ হাসিনা ও ছাত্রলীগকে নিয়ে উল্টাপাল্টা স্লোগান দিলে আমাদের জুনিয়ররা সহ্য করতে পারেনি। পরে আমরা গিয়ে সমঝোতার চেষ্টা করি।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক আলী আজগর চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, একটি বাম সংগঠনের নেতাকর্মীরা আমাদের কাছে অভিযোগ করে যে তাদের মারধর করা হয়েছে। আমরা সেখানে ছুটে যাই এবং তাৎক্ষণিক পুলিশ নিয়ে আসি। তারা আমাদের মিছিলের ব্যাপারে জানালে আমরা প্রস্তুতি নিতে পারতাম।

জয়নিউজ/নবাব/পলাশ/আরসি

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...