এ কেমন বর্বরতা

0

ভারতের বিহারে এক নারীকে প্রথমে মারধর, তারপর নগ্ন করে রাস্তায় প্যারেড করালো উত্তেজিত জনতা। ভোজপুর জেলার বিহিয়া থানা এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটেছে।

ঘটনার সূত্রপাত, বিমলেশ শা নামের এক যুবকের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায়। রোববার থেকে তাঁর কোনো হদিশ পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষ পর্যন্ত সোমবার সকালে একটি রেললাইনের ধারে তাঁর মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া যায়। এর পরই তাঁর গ্রামের লোকজন এসে চড়াও হয় স্থানীয় যৌনপল্লীতে। গ্রামবাসীর অভিযোগ, যৌনপল্লীর এক নারীর মদতেই খুন করা হয়েছে বিমলেশকে।

সোমবার সকাল থেকেই উত্তেজিত জনতা যৌনপল্লীতে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। বাড়িতে আগুন লাগানো, স্থানীয় বাসিন্দাদের মারধর, অনবরত পাথর ছুঁড়ে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ করে তোলে তারা। অভিযোগ, একজন নারীকে বাড়ি থেকে রাস্তায় বের করে নিয়ে এসে জামাকাপড় খুলিয়ে নগ্ন করে মারধর করা হয়। তারপর রাস্তায় মারতে মারতে প্যারেড করানো হয় তাঁকে।

শুধু ওই নারীকে মারধর বা প্যারেড করানোই নয়, রেললাইন দিয়ে যাওয়া দূরপাল্লার ট্রেন, যাত্রীবাহী বাসের দিকেও পাথর ছুঁড়তে থাকে জনতার একাংশ। উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জের পাশাপাশি শূন্যে গুলি চালায় পুলিশ। গ্রামবাসীদের তরফেও পুলিশকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি চালানো হয় বলে জানানো হয়েছে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। ভোজপুর জেলার পুলিশ সুপার অবকাশ কুমার জানিয়েছেন একটি মামলা রুজু করা হয়েছে, দ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হবে।

সূত্র : আনন্দবাজার

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...