চবিতে হল প্রভোস্ট ৫ ঘণ্টা অবরুদ্ধ

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) বন ও পরিবেশবিদ্যা ইনস্টিটিউটের সূর্যসেন হলের প্রভোস্ট ও হাউস টিউটরদের পদত্যাগের দাবিতে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রেখেছিল ওই আবাসিক হলটির শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘদিন ধরে হলের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান না হওয়ায় তাদের অবরুদ্ধ রাখা হয় বলে জানা গেছে।

বুধবার (২০ মার্চ) হলটির আবাসিক শিক্ষার্থীরা সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত হল প্রভোস্টের কক্ষে তালা দিয়ে ব্যানার, প্ল্যাকার্ড নিয়ে কক্ষের সামনে অবস্থান নেয়। পরে সমস্যা সমাধানের আশ্বাসে তাদের মুক্ত করা হয়।

বন ও পরিবেশবিদ্যা ইনস্টিটিউটের ছাত্রদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, খাবার পানি সংকট, হলের ডাইনিংয়ে অপরিচ্ছন্ন বাসন, নিম্নমানের খাবার পরিবেশন, বাবুর্চিসংকট, হলে মশা ও সাপের উপদ্রব, অপরিচ্ছন্ন টয়লেট ও অব্যবস্থাপনাসহ নানামুখী সমস্যা রয়েছে মাস্টারদা সূর্যসেন হলে। হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা পাঁচ মাস ধরে হল প্রভোস্টকে সমস্যার কথা জানিয়ে আসছিল।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ সমস্যাগুলো নিয়ে আমরা প্রভোস্ট স্যারের কাছে অভিযোগ দিয়ে আসছি। কিন্তু তিনি আমাদের সমাধানের কোন আশ্বাস দিতে পারছে না। তাই আমরা আন্দোলনে নেমেছি। যতক্ষণ দাবি আদায় না হবে ততক্ষণ আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী প্রক্টর হেলাল উদ্দিন আহমদ জয়নিউজকে জানান, আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো যৌক্তিক। যে সমস্যাগুলো আছে সেগুলো খুব দ্রুত সমাধান করবো। তবে বেশ কিছু অবকাঠামোগত সমস্যা রয়েছে যেগুলো দ্রুত সমাধানের সুযোগ নেই। এই আশ্বাস আমি দিতে পারব না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. খালেদ মিসবাহুজ্জামান বলেন, সূর্যসেন হল অনেক পুরাতন একটি হল। স্বাভাবিকভাবেই হলে কিছু সমস্যা রয়েছে। আমরা এসব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি। আমিও চাই শিক্ষার্থীদের দাবি দ্রুত সমাধান হোক।

জয়নিউজ/নবাব/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...